চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ৩১ মে ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দেশে আরও ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে

সমীকরণ প্রতিবেদন
মে ৩১, ২০২১ ৮:৫৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

চুয়াডাঙ্গায় চলতি মাসে সর্বোচ্চ ১১ জনের করোনা শনাক্ত, নমুনা সংগ্রহ ১১২
সমীকরণ প্রতিবেদক:
সারা দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৪৪৪ জন। গতকাল রোববার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনা ভাইরাস নিয়ে নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনামুক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৩৯৭ জন। আর এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৭ লাখ ৩৮ হাজার ৮০৫ জন। নতুন করে মারা যাওয়া ৩৪ জনকে নিয়ে দেশে ভাইরাসটিতে মোট মৃতের সংখ্যা ১২ হাজার ৫৮৩ জন। আর দেশে মোট করোনা রোগীর সংখ্যা ৭ লাখ ৯৮ হাজার ৮৩০ জন। গত একদিনে ১৪ হাজার ৪১৮ জনের নমুন সংগ্রহ করা হলেও পরীক্ষা করা হয়েছে ১৪ হাজার ২৭৭ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৩৪ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৮ জন। এছাড়া চট্টগ্রামে ১২, রাজশাহীতে ৩, খুলনায় ৬, বরিশাল ১, সিলেটে ১ ও রংপুরে ২ জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে ২৩ জন পুরুষ এবং ১১ জন নারী। ৩ জন ছাড়া সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে ২১ জনেরই বয়স ৬০ বছরের বেশি। এছাড়া ৫১ থেকে ৬০ বছরের ৫ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের ৫ জন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছরের ২ জন ও ২১ থেকে ৩০ বছরের ১ জন মারা গেছেন।
চুয়াডাঙ্গা:
চুয়াডাঙ্গায় চলতি মাসের সর্বোচ্চ ১১ জন করোনা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। গতকাল রোববার জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। গতকাল আলমডাঙ্গা উপজেলায় একজন সুস্থ হয়েছে। গতকাল জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা পরীক্ষার জন্য ১১২টি নমুনা সংগ্রহ করেছে পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করেছে। চলতি মাসে এক দিনে এটাই সর্বোচ্চ নমুনা সংগ্রহ।
জানা যায়, চলতি মাসের গত ২১ মে, ২৫ মে ও ২৮ মে সর্বোচ্চ ১০ জন করে করোনা শনাক্ত হয়। এর পূর্বে গত এপ্রিল মাসের প্রথম দুদিন ১৪ জন করে করোনা শনাক্ত হয় এবং এপ্রিল মাসের চার তারিখে সর্বোচ্চ ১১ জন করোনা শনাক্ত হয়। এরপর গত ২৯ মে পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ ১০ জন করোনা শনাক্তের খবর পাওয়া যায়। তবে টানা ৫১ দিনপর গতকাল রোববার আবার একদিনে ১১ করোনা শনাক্ত হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিসের এক পরিসংখ্যানে এ পাওয়া যায়।
এদিকে, গত শনিবার জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ করোনা পরীক্ষার জন্য ৪৩টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করে। গতকাল উক্ত নমুনার মধ্যে ৪১টি নমুনার ফলাফল সিভিল সার্জন অফিসে এসে পৌঁছায়। এর মধ্যে ১১টি নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে বাকী ৩০টি নমুনার পলাফল নেগেটিভ আসে। গতকাল নতুন আক্রান্ত ১১ জনের মধ্যে সদর উপজেলার দুইজন, আলমডাঙ্গার দুইজন, দামুড়হুদার চয়জন ও জীবননগরের একজন রয়েছেন। এনিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৯৬৮ জনে। মোট শনাক্তদের মধ্যে সদর উপজেলার ১ হাজার ২৫ জন, আলমডাঙ্গায় ৩৬৭ জন, দামুড়হুদায় ৩৬৬ জন ও জীবননগরে ২১০ জন।
গতকাল যে একজন সুস্থ হয়েছেন তিনি আলমডাঙ্গা উপজেলার বাসিন্দা। এনিয়ে জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮১৭ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলার ৯৭০ জন, আলমডাঙ্গার ৩৪০ জন, দামুড়হুদায় ৩১৫ জন ও দামুড়হুদায় ১৯২ জন সুস্থ হয়েছেন।
চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিসের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী জেলা থেকে এ পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ ৯ হাজার ৮৭৬টি, প্রাপ্ত ফলাফল ৯ হাজার ৫৬২টি, পজিটিভ ১ হাজার ৯৬৮টি। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত চুয়াডায় ৮৪ জন করোনাক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় অবস্থানকালে আক্রান্ত হয়েছেন ২৬ জন, আলমডাঙ্গায় ৮ জন, দামুড়হুদায় ৩৬ জন ও জীবননগরে ১৪ জন। আক্রান্তদের মধ্যে বর্তমানে ৬১ জন হোম আইসোলেশনে আছেন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ২২ জন, আলমডাঙ্গায় ৮ জন, দামুড়হুদায় ১৮ জন ও জীবননগরে ১৩ জন। প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে আছেন সদর উপজেলার ৪ জন ও দামুড়হুদার ১৮ জন ও জীবননগরের ১ জন জনসহ মোট ২৩ জন। চুয়াডাঙ্গায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ৬৭ জনের। এরমধ্যে সদর উপজেলার ২৫ জন, আলমডাঙ্গায় ১৭ জন, দামুড়হুদায় ১৫ জন ও জীবননগরে ৪ জন। চুয়াডাঙ্গায় আক্রান্ত অন্য ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে এ জেলার বাইরে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।