দেশে আরও ১৬ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫৮৪

55

গত ২৪ ঘণ্টায় চুয়াডাঙ্গায় নতুন আক্রান্ত নেই, সুস্থ ১
সমীকরণ প্রতিবেদন:
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে দেশে আরও ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময় নতুন সংক্রমিত হয়েছে ৫৮৪ জন। গতকাল বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে সুস্থ হয়েছেন ৬০২ জন। গতকাল পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়ে বাংলাদেশে মোট মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৯৬৬ জন। দেশে করোনাভাইরাসে মোট সংক্রমিত হয়েছে ৫ লাখ ৩০ হাজার ২৭২ জন। করোনায় সংক্রমিতের মধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৭৫ হাজার ৭৪ জন। বাংলাদেশে গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে। ক্রমেই মহামারি আকারে সংক্রমণ বিশ্বের প্রায় সব দেশে ছড়িয়ে পড়ে। শুরুর দিকে রোগী শনাক্তের হার কম ছিল। গত বছরের মে মাসের মাঝামাঝি থেকে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। ওই মাসের শেষের দিক থেকে রোগী শনাক্তের হার ২০ শতাংশের ওপরে চলে যায়, যা আগস্টের তৃতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত বজায় ছিল। এরপর থেকে নতুন রোগীর পাশাপাশি শনাক্তের হারও কমতে শুরু করেছিল।
চুয়াডাঙ্গা:
চুয়াডাঙ্গায় নতুন কেউ করোনা আক্রাক্ত হয়নি। এখন পর্যন্ত জেলায় মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৬৫৮ জনে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত আটটায় জেলা সিভিল সার্জন অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করে। গতকাল জেলার দামুড়হুদা উপজেলা থেকে নতুন ১জন সুস্থ হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৫৫০ জন।
গত বুধবার জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা পরীক্ষার জন্য ১৪টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করে। গতকাল উক্ত ১৪টি নমুনার ফলাফল নেগিটিভ আসে। গতকাল জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা পরীক্ষার জন্য সদর উপজেলা থেকে ১৮টি ও জীবননগর থেকে ১টি নমুনাসহ মোট ১৯টি সংগ্রহ করে কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে প্রেরণ করেছে।
চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিসের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী জেলা থেকে এ পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ ৭ হাজার ৬৯৭টি, প্রাপ্ত ফলাফল ৭ হাজার ৪৭৪টি, পজিটিভ ১ হাজার ৬৫৮টি, নেগেটিভ ৫ হাজার ৮১৯টি। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জেলায় হোম আইসোলেশনে ছিলেন ৫ জন ও প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে ছিলেন ১ জন।