চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১৮ অক্টোবর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দুর্দান্ত ওমানের দাপুটে জয়

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ১৮, ২০২১ ৮:০৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

খেলাধুলা প্রতিবেদন:
করোনাভাইরাসের তীব্রতার কারণে ভারত থেকে সরিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নেওয়া হয়েছে ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে। ৮ দলের প্রথম রাউন্ডের খেলা হচ্ছে মাসকাটে। হোম অ্যাডভান্টেজ কাজে লাগিয়ে নবাগত পাপুয়া নিউ গিনিকে গুঁড়িয়ে দিলো ওমান। অধিনায়ক ও স্পিনার জিশান মাকসুদের দারুণ বোলিংয়ের পর দুই ওপেনারের অপরাজিত হাফ সেঞ্চুরিতে ১০ উইকেটের দাপুটে জয় পেল স্বাগতিকরা। আল আমিরাত স্টেডিয়ামে টস জিতে ফিল্ডিং নিয়ে ৯ উইকেটে ১২৯ রানে পাপুয়া নিউ গিনিকে থামায় ওমান। তারপর ১৩.৪ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়ে ১৩১ রান করে তারা। ২০ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন মাকসুদ। গত বিশ্বকাপে প্রথমবার নাম লেখানো ওমান দ্বিতীয় আসরে দারুণ শুরু করেছে ব্যাটে-বলে অলরাউন্ড নৈপুণ্যে। মাকসুদের স্পিন জাদুর পর ব্যাটিংয়ে নেমে একই ছন্দে থেকে জেতে দলটি। পাওয়ার প্লের প্রথম ৬ ওভারে ৪৬ রান করে স্বাগতিকরা। ৪১ বলে ৫০ রান করে ওমান। পরের পঞ্চাশ তারা করেছে ৩০ বল খেলে। যতীন্দর সিং ৩৩ বলে ৫ চার ও ৩ ছয়ে ৫০ করেন। তার চেয়ে ১০টি বল খেলে হাফ সেঞ্চুরি করেন আকিব ইলিয়াস। ১৪তম ওভারের চতুর্থ বলে ছক্কা মেরে দলকে জেতানোর সঙ্গে ফিফটিও ছোঁন তিনি। ৪২ বলে ৭ চার ও ৪ ছয়ে ৭৩ রানে খেলছিলেন যতীন্দর। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শূন্য রানে ২ উইকেট হারানোর পর ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে পাপুয়া নিউ গিনি। ১০ ওভারে তাদের স্কোর ২ উইকেটে ৭০ রান। ডাক মারেন দুই ওপেনার টনি উরা ও লেগা সিয়াকা। প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে বিলাল নেন উইকেট। তারপর দ্বিতীয় ওভারের তৃতীয় বলে কলিমউল্লাহ নেন অন্য উইকেট। পরে অধিনায়ক আসাদ ভালা ও চার্লস আমিনি প্রতিরোধ গড়েন পঞ্চাশ ছাড়ানো জুটিতে। পাওয়ার প্লের প্রথম ৬ ওভারে ৪০ রান করে ২ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে। দারুণ ছন্দে ছিলেন আসাদ ও আমিনি। ১০ ওভার যেতেই ভুল বোঝাবুঝিতে ভাঙে এই জুটি। ১২তম ওভারের তৃতীয় বলে নন স্ট্রাইকে থাকা আমিনি সিঙ্গেল নিতে গিয়ে আসাদের সংশয়ের কারণে ফিরে যান। ততক্ষণে বোলার মোহাম্মদ নাদিম রান আউট করেন তাকে। ২৬ বলে চারটি চার ও ১ ছয়ে ৩৭ রানে মাঠ ছাড়েন আমিনি। অধিনায়কের সঙ্গে তার জুটি ছিল ৮১ রানের। ৪০ বলে চারটি চার ও তিনটি ছয়ে হাফ সেঞ্চুরি করা আসাদ থামেন ৫৬ রান করে। কলিমউল্লাহর কাছে শেষ হয় তার ৪৩ বলে সাজানো ইনিংসের। আর দাঁড়াতে পারেনি পাপুয়া নিউ গিনি। মাকসুদ ১৬তম ওভারে তিন উইকেট নেন। পরের ওভারে এই স্পিনার নবম উইকেট তুলে নেন। ‘বি’ গ্রুপে পরের ম্যাচে ওমানের প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ, ম্যাচটি হবে ১৯ অক্টোবর। আর স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হবে পাপুয়া নিউ গিনি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।