দুনিয়ার অর্ধেক সম্পদ আছে মাত্র ৮ ব্যক্তির কাছে

252

সমীকরণ ডেস্ক: পৃথিবীর প্রায় অর্ধেক মানুষের সম্পদের সমান সম্পদ আছে মাত্র ৮ ব্যক্তির হাতে। অর্থাৎ, অর্থবিত্তের দিক থেকে পিছিয়ে থাকা অর্ধেক বা ৩৬০ কোটি মানুষের হাতে থাকা যত সম্পদ রয়েছে, ঠিক তত সম্পদ আছে মাত্র ৮ ব্যক্তির কাছে। এই ৮ ব্যক্তি দুনিয়ার শীর্ষ ধনী। দাতব্য সংস্থা অক্সফাম এ তথ্য দিয়েছে। এ খবর দিয়েছে বিবিসি। এ শীর্ষ ৮ ব্যক্তি হলেন: বিল গেটস, আমান্সিও ওর্তেগা, ওয়ারেন বাফেট, কার্লোস স্লিম, জেফ বেজোস, মার্ক জাকারবার্গ, ল্যারি এলিসন ও মাইকেল ব্লমবার্গ। অক্সফাম বলেছে, আরো ভালোভাবে যাচাই বাছাইকৃত উপাত্ত থেকে এ সিদ্ধান্তে এসেছে তারা। সংস্থাটির মন্তব্য, ধনী ও দরিদ্র্যের মধ্যে ব্যবধান আশঙ্কার চেয়েও বেশি। তবে এমন উপসংহার নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ। সুইজারল্যান্ডের দাভোসে মর্যাদাবান বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম সম্মেলনের সূচনাকালে এমন রিপোর্ট প্রকাশ করেছে অক্সফাম। এই সম্মেলনে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান, ব্যবসায়ী ও নীতিনির্ধারকরা জড়ো হন। ইন্সটিটিউট অব ইকোনমিক অ্যাফেয়ার্স-এর মার্ক লিটলউড বলেছেন, কিভাবে প্রবৃদ্ধি বাড়ানো যায়, সেদিকেই বরং মনোযোগ দেয়া উচিত অক্সফামের। মুক্ত বাজার অর্থনীতি সম্পর্কিত এই থিংক ট্যাংকের মহাপরিচালক মন্তব্য করেন, ‘দারিদ্র্যবিরোধী দাতব্য সংস্থা হিসেবে অক্সফাম আশ্চর্য্যজনকভাবে ধনীদের সঙ্গেই লেগে আছে।’ তিনি যোগ করেন, যারা দারিদ্র্য পুরোপুরি দূর করতে চান, তাদের মনোযোগ এমন সব পদক্ষেপের প্রতি হওয়া উচিত যা অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে ত্বরান্বিত করবে। অ্যাডাম স্মিথ ইনস্টিটিউটের বেন সাউথউড বলেন, বিশ্বের ধনীদের সম্পদ এখানে গুরুত্বপূর্ণ নয়। গুরুত্বপূর্ণ হলো দুনিয়ার দরিদ্রদের মঙ্গল। প্রতি বছরই এতে অগ্রগতি হচ্ছে। তার ভাষ্যে, প্রতি বছর অক্সফামের সম্পদ পরিসংখ্যানের মাধ্যমে আপনি বিভ্রান্ত হন। তথ্য-উপাত্ত ঠিক আছে। কিন্তু এর ব্যাখ্যা ঠিক নেই।