দীর্ঘ ২০ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে হেরে গেলেন মা হাবিবা

364

জীবননগরের আন্দুলবাড়িয়ায় গ্যাসের চুলা জ্বালানোর সময় মা-ছেলে দগ্ধ
দীর্ঘ ২০ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে হেরে গেলেন মা হাবিবা
DSCN0010নিজস্ব প্রতিবেদক: দীর্ঘ ২০দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জালড়ে হেরে গেলেন গ্যাসের চুলা জ্বালানোর সময় অসতর্কতা বসত দগ্ধ গৃহবধূ হাবিবা সুলতানা (৫০)। গতকাল রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন। একই দূর্ঘটনায় গুরুতর আহত তার ছেলে খন্দকার তানজির আহম্মেদ (১৩)’র অবস্থা একটু ভালো। জানা যায়, গত ২১ জুলাই শুক্রবার জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়ীয়ার রাজধানী পাড়ায় নিজ ঘরের রান্না ঘরে গ্যাসের চুলা জ্বালানোর সময় অসতর্কতা বশত সিলিন্ডার থেকে গ্যাস বেরিয়ে আগুন ধরে মা ও ছেলে একই সাথে দগ্ধ হয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়। এখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দু’জনকেই ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে রেফার্ড করেন। সেখানে দীর্ঘ ২০দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে গতকাল রাত সাড়ে ১১টার দিকে তিনি মৃত্যু বরণ করেন। প্রসঙ্গত, গ্যাস সিলিন্ডারের হোল্ডারের সঙ্গে ঠিকমত সংযোগ না থাকায় সেখান থেকেই অল্প অল্প করে গ্যাস বেরিয়ে সারা ঘরে গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় রান্নার জন্য গ্যাসের চুলায় আগুন দিতেই সারা ঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আগুনে জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়ার মরহুম সাংবাদিক খন্দকার নাসির উদ্দিনের স্ত্রী হাবিবা সুলতানা (৫০) ও তার ছেলে খন্দকার তানজির আহম্মেদ (১৩) দগ্ধ হয়।