চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১০ অক্টোবর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দামুড়হুদা (প্রাঃ) হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় আবারো রোগীর মৃত্যু বিক্ষুব্ধ জনতার ভাঙচুর : পুলিশী বাধা : হাসপাতাল বন্ধসহ চিকিৎসকের বিচারের দাবি এলাকাবাসীর

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ১০, ২০১৬ ১২:৪৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

Damurhuda news pic (1)09-10-16

দামুড়হুদা/শহর প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা সদরে দামুড়হুদা (প্রাঃ) হাসপাতালে আবারো ভুল চিকিৎসায় রহিমা খাতুন (২৬)নামে এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। দুই সন্তানের জননী রহিমা খাতুন দামুড়হুদার নতুন বাস্তবপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর মেয়ে। রোববার সন্ধ্যায় ভুল চিকিৎসায় সে মারা যায়। রোগীর মৃত্যুর খবর শুনে হাসপাতাল কতৃপক্ষ হাসপাতালের গেটে তালা লাগিয়ে সটকে পড়ে। এই হাসপাতালে রোগীর মৃত্যুর খবর পেয়ে স্থানীয় বাজারের শত শত লোক হাপাতালের সামনে জড়ো হয়ে ভুল  চিকিৎসায় একের পর এক রোগী মারা যাওয়ায় এলাকাবাসী দামুড়হুদা (প্রাঃ) হাসপাতাল বন্ধসহ চিকিৎসকের বিচারের দাবী জানিয়েছেন।
রহিমার পিতা মোহাম্মদ আলী জানান, রোববার বিকালে তার মেয়ে দুই সন্তানের জননী রহিমা খাতুনের পিত্তথলীর পাথর অপারেশনের জন্য তাকে দামুড়হুদা (প্রাঃ) হাসপাতালে নিয়ে এলে হাসপাতালের মালিক জাহাঙ্গীর হোসেন  রহিমাকে হাসপাতালে ভর্তি করে নেয় এবং তাকে ভর্তি করার পরপরই অপারেশনের জন্য তাড়াহুড়া শুরু করে। এসময় রহিমার স্বামী বক্তিয়ার হোসেন তার স্ত্রী শারীরিকভাবে দুর্বল থাকায় এই মুহুর্তে অপারেশন করতে অসম্মতি জানান এবং দু’দিন পর অপারেশন করার কথা বলেন। দামুড়হুদা প্রাইভেট ক্লিনিকের মালিক জাহাঙ্গীর আলম নিহত রহিমার স্বামীর অসম্মতি সত্ত্বেও পরিবারের অনুমতি ব্যতিত বিকাল ৪টার দিকে ডাঃ তরিকুলকে এনে অপারেশন সম্পন্ন করে। এর ঘন্টা খানেক পর রোগীর অবস্থার অবনতি হলে হাসপাতাল কতৃপক্ষ তড়িঘড়ি করে রোগীকে স্যালোইঞ্জিন চালিত করিমনযোগে দর্শনায় ডাঃ তরিকুলের মর্ডান ক্লিনিকে পাঠিয়ে দেয়। সেখানে রোগীর অবস্থার আরও অবনতি হওয়ায় সেখান থেকে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠালে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: মশিউর রহমান জানান রোগী হাসপাতালে আসার বেশ পূর্বেই তার মৃত্যু হয়েছে। এই হাসপাতালে একইভাবে অপচিকিৎসায় মাস তিনেকের মধ্যে ৩ জন রোগী মারা যাওয়ায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের নিকট উপযুক্ত তদন্তসাপেক্ষে হাসপাতাল বন্ধসহ চিকিৎসকের বিচার দাবী করেছেন।
দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু বলেন, প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি না থাকায় সঠিকভাবে পরীক্ষা নীরিক্ষা না করে অদক্ষ ডাক্তার দিয়ে চিকিৎসা করায় এই হাসপাতালে একের পর এক রোগী মারা যাচ্ছে।
সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের এধরনের হাসপাতাল বন্ধসহ হাসপাতাল কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া উচিত বলে তিনি মত প্রকাশ করেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।