চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ১৮ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দামুড়হুদা উপজেলার বুইচিতলা পদ্ধবিল এখন প্রভাবশালীদের দখলে! সরকারীভাবে উদ্ধারের কোন পদক্ষেপ নেই : সরকার হারাচ্ছে প্রায় আর্ধকোটি টাকার রাজস্ব

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ১৮, ২০১৬ ৫:৪৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Boysetalla Bill

দর্শনা অফিস: দামুড়হুদা উপজেলার বুইচিতলা পদ্ধবিল এখন প্রভাবশালীদের দখলে সরকারীভাবে উদ্ধারের কোন পদক্ষেপ নেই। ফলে প্রতিবছর সরকার হারাচ্ছে প্রায় আর্ধকোটি টাকার রাজস্ব। দামুড়হুদা উপজেলাধীন বুইচিতলা মৌজায় নি¤œ তপশীল বর্নিত সরকারের খাস সায়রাত জলমহলের পদ্ধবিল সরকারের খাস দখলে নেওয়ার জন্য গত ৬ নভেম্বর ২০০৮ সালে ঢাক ঢোল সহরতের মাধ্যমে লাল পতাকা টাঙ্গিয়ে সরকারের সায়ারাত ভুক্ত বুইচিতলা পদ্ধবিল জলমহল দখল গ্রহন করেন এবং প্রতিবেদন দাখিল করে। যার স্বারক নং জেঃপ্রঃ/চুয়া/এসএ/স-১ (সায়রাত)-৩১/০৮-১৯৮৬ (৪) তারিখ ৬/১১/০৮ এবং ৬/১১/০৮ তারিখে নং ডকেট মতে এবিল দখল করে।  ১৬৬৯ নং ডকেট মোতাবেক দামুড়হুদা অফিসের কেজি ও সার্ভেয়ার চেইনম্যান এবং ইউনিয়ন ভূমি অফিসের উপ-সহকারী কর্মকর্তা আশরাফুল আলম একজন এমএলএস সহকারে বুইচিতলা গ্রামের একজন ঢোল বাদক ও উল্লেখিত গ্রামের স্থানীয় জন-সাধারনের উপস্থিতে বিলের চতুর দিক প্রদক্ষিন করে ঢোল বাজিয়ে এবং লাল পতাকা সহরতের মাধ্যমে দখল গ্রহন করা হয়।  বিলের দখল করার সময় কোন ব্যক্তি আপত্তি বা বাঁধা প্রদান করেনি। এছাড়া ঔ সময় বুইচিতলা গ্রামের ময়াজিমের অনুমতিক্রমে মাইক দিয়ে পদ্ধবিল সরকারের বলে ঘোষনা করা হয়েছিল। এরপর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সায়ারাত ভুক্ত করে গত ৯/১১/২০০৮ তারিখে সরকারের খাস দখলে নেওয়া হয়েছিল। এ বিল দখল করে বাঁশগাড়ীর মাধ্যমে বিলটি দখল করে ৪ লাখ টাকায় মাছ চাষের জন্য ইজারা দেওয়া যেতে পারে বলে ঘেষনা করা হয়। এসএ ১ ও ১ খতিয়ানে ১৭১২ ও ১৭১৩ দাগে ৪৪ দশমিক ৭০একর জমির বুইচিতলা পদ্ধবিল জলমহল সরকারের দখলে  সায়ারাত ভুক্ত দখল গ্রহনের রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর (ভাঃ) চুয়াডাঙ্গা আজহার”ল ইসলাম গত ৩/১১/২০০৮ সালে নির্দেশ মোতাবেক বাঁশগাড়ী করে ঢাক ঢোল পিটিয়ে পদ্ধবিল দখল নেওয়ার পরও কেন এবং কোন অজানা কারণে আজও পদ্ধবিল প্রভাশালীদের দখলে। তা এখন স্থানীয় সরকার প্রশাসনকে খতিয়ে দেখা প্রয়োজন বলে এলাকার সচেতনমহল মনে করছে। সেই সাথে সরকারী রাজস্ব ফিরিয়ে আনতে জর”রী পদক্ষেপ গ্রহন করা প্রয়োজন বলে এলাকাবাসীর দাবী।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।