চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দামুড়হুদায় শিক্ষকের বেত্রাঘাতে দুই ছাত্র আহতের ঘটনায় থানায় মামলা বিচারের দাবিতে শ্রেণীকক্ষে চেয়ার ভাঙচুর : শিক্ষক সাময়িক বরখাস্ত

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ১৪, ২০১৬ ৯:৩৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Damurhudannews Pic(2)_13.11.16.doc

দামুড়হুদা প্রতিনিধি: দামুড়হুদা উপজেলার গোবিন্দহুদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক কুতুব উদ্দীন নবম শ্রেনীর ছাত্র মনিরুল(১৫) ও জাকিরুল(১৫) জমজ দুই ভাইকে বেত্রাঘাত করে মারাত্মক আহত করায় মামলা দায়েরসহ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর অভিযোগ দায়ের করেছে। গতকাল, রোববার দুপুরে ধর্মীয় শিক্ষক কুতুব উদ্দীনের বেত্রাঘাতে আহত দুই স্কুল ছাত্রের পিতা মজিবার রহমান(৪০) বাদী হয়ে দামুড়হুদা মডেল থানায় মামলা দায়েরসহ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নুরুল হাফিজ বরাবর অভিযোগ দায়ের করেছে। এসময় উপস্থিত দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান। দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার অভিযোগ পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে ৩ সদস্যর একটি তদন্ত টিম গঠন করে আগামী ৩ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। তদন্ত টিমের সদস্যরা হলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুফি মো: রফিকুজ্জামান, উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা সানোয়ার হোসেন ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রাজ কুমার পাল। এবিষয়ে স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও চিৎলা-গোবিন্দহুদা গ্রামের বর্তমান মেম্বর লুৎফর রহমান জানান, গত শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নবম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র মনিরুল(১৫) ও জাকিরুল(১৫) জমজ দুই ভাইকে পিটিয়ে আহত করায় স্কুলের ধর্মীয় শিক্ষক কুতুব উদ্দীনকে সাময়ীক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়াও স্কুল পরিচালনা কমিটির এ ঘটনা তদন্তের জন্য ৫সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে ৭দিনের মধ্যে বিষয়টি তদন্ত করে রির্পোট স্কুল পরিচালনা কমিটির কাছে জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তদন্ত কমিটিতে রয়েছে স্কুল পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি সাজদার রহমান, শিক্ষক বজলুর রহমান, সুলতানা পারভীন গন্যমান্য ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছে, ফরজ আলী ও রকিবুল খাঁন। এঘটনায় গতকাল অত্র বিদ্যালয়ের উত্তেজিত ছাত্ররা সকাল ১০টার দিকে বিদ্যালয়ের শিক্ষক কুতুব উদ্দীনের বিচারের দাবীতে ক্লাস রুমের চেয়ার বেঞ্চ ভাংচুর করেছে। উল্লেখ্য, গত শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ধর্মীয় শিক্ষক কুতুব উদ্দীন নবম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র জমজ দুই ভাই মনিরুল(১৫) ও জাকিরুল(১৫) কে পিটিয়ে আহত করে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মনিরুল (১৫)চিৎলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলো বলে জানা যায়।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।