চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ২৮ অক্টোবর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দামুড়হুদার হরিশ্চন্দ্রপুরে পতিতা নিয়ে এসে দেহ ব্যবসা করানোর অভিযোগ মুখোশধারীদের বিচারের দাবিতে সোচ্চার এলাকাবাসী

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ২৮, ২০১৬ ২:০২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

yMm„cকুড়ুলগাছি প্রতিনিধি: দামুড়হুদার হরিশ্চন্দ্রপুরে বাজার থেকে পতিতা নিয়ে এসে জমজমাট ভাবে দেহ ব্যবসা করার অভিযোগ উঠেছে গ্রামের কিছু মুখোশধারী অসাধু ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে এলাকার সচেতন মহল। গোপন সুত্রে জানা গেছে, দামুড়হুদা উপজেলার কুড়ুলগাছি ইউনিয়নের হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামে গত ২৫ অক্টোবর রাত ১১টার দিকে বড়বলদিয়া মাঠে অনৈতিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকা অবস্থায় দু’জন কপোত-কপোতীকে আটক করে এলাকাবাসী। পরে তাদের অপকর্মের বিচারে গ্রামে সেই রাতে সালিশ বৈঠক বসলে বেরিয়ে আসে আসল কাহিনী। সালিশে ওই মহিলার কাছে ঘটনার সত্যতা জানতে চাইলে, সে বলে আমাকে টাকার বিনিময়ে আমাকে দিয়ে দেহ ব্যবসা করানোর জন্য এই গ্রামে আনা হয়। যারা এই গ্রামে ভাল মানুষের মুখোশ পরে সাধু সেজে ঘুরে বেড়ায়। তারা হল হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামের মান্দার আলির ছেলে জিন্নাত আলি, হাজী নূর ইসলামের ছেলে হারুন-অর-রশিদ, ইলিয়াসের ছেলে আতিয়ার রহমান, মৃত হানেফ মন্ডলের ছেলে হাবিল উদ্দিন, শাহজাহান গাইনের ছেলে শামসুর রহমান, মৃত আলি আহম্মদের দুই ছেলে নওশাদ আলি ও হাফিজুর রহমান, আঃ মজিদের ছেলে কালু, ফজলুর রহমানের ছেলে আহসান আলি। উপর মহলে রাজনৈতিক প্রভাব থাকার কারণে এদের বিরুদ্ধে সামনা-সামনি কেউ কিছু বলতে পারে না। এরা দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন স্থান থেকে মহিলাদের নিয়ে এসে এমন অনৈতিক কাজ করে যাচ্ছে। সামাজিক সুষ্ঠু পরিবেশ রক্ষার্থে এহেন অসামাজিক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহনে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের উদ্যোগী ভূমিকা কামনা করেছেন এলাকার সচেতন মহল।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।