চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ৪ অক্টোবর ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দাঁতের হলদে ভাব দূর করার উপায়

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ৪, ২০২০ ৯:১৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

স্বাস্থ ডেস্ক:
দাঁতের হলদে ভাব নিয়ে অনেকেই চিন্তিত থাকেন। হলদে ভাব কাটিয়ে ফের উজ্জ্বল দাঁত সাদা করে তুলতে আধুনিক পদ্ধতির সাহায্য নেওয়া যেতেই পারে। কিন্তু একেবারে কম খরচে যদি দাঁতকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে চান, তাহলে আজ থেকেই কিছু ঘরোয়া পদ্ধতিগুলিকে কাজে লাগানো শুরু করে দিন।
কলার খোসা: কলার খোসার সাদা দিকটি নিয়মিত দাঁতে ঘষলে দাঁতের হলদেটে ভাব দ্রুত কেটে যায়। তবে কলার খোসা দিয়ে দাঁত ঘষার পর অবশ্যই হলকা গরম পানি দিয়ে ভালো করে কুলকুচো করে নিতে হবে।
লবণ: দাঁতকে পরিষ্কার রাখতে বহু যুগ ধরেই লবণের ব্যবহার হয়ে আসছে। কারণ লবণ দাঁতের পুষ্টির ঘাটতি দূর করার পাশাপাশি দাঁতের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই দাঁতের হলদে ভাব কাটানোর ক্ষেত্রে লবণকে কাজে লাগানোর পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরাও। এক্ষেত্রে প্রতিদিন সকালে কাঠকয়লার সঙ্গে নুন মিশিয়ে সেই মিশ্রণ দিয়ে দাঁত মাজতে হবে। কয়েক সপ্তাহ এই মিশ্রণ দিয়ে দাঁত মাজলেই দাঁতের হলদে ভাব অনেকটা কমে যাবে।
কমলা লেবুর খোসা: দাঁতের সৌন্দর্য ফেরাতে কমলা লেবুর খোসা দারুণ কার্যকরী। প্রতিদিন রাতে সামান্য কমলা লেবুর খোসা নিয়ে দাঁতে একটু সময় নিয়ে ঘষুন। নিয়মিত এমনটা করলেই দাঁতের হলদে ভাব অনেকটা কমে যাবে।
খাবার সোডা: দাঁতের হলদেটে ভাব কাটাতে খাবার সোডার কোনও বিকল্প মতো সহজলভ্য বিকল্প আর নেই। এ ক্ষেত্রে প্রতিদিন সকালে টুথপেস্টের সঙ্গে খুব সামান্য পরিমাণে খাবার সোডা মিশিয়ে দাঁত মাজুন। তারপর উষ্ণ জল দিয়ে ভালো করে কুলকুচো করে মুখটা ধুয়ে নিন। সপ্তাহে অন্তত বার দু’য়েক এই ঘরোয়া পদ্ধতিকে কাজে লাগিয়ে দাঁত মাজলে দ্রুত সুফল মিলবে।
তুলসী পাতা: তুলসী পাতা দাঁতের স্বাস্থ্যের পক্ষে বেশ উপকারী। বেশি করে তুলসী পাতা নিয়ে সেগুলোকে রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। পাতাগুলো একেবারে শুকিয়ে গেলে সেগুলোকে গুঁড়ো করে যেকোনো টুথপেস্ট মিশিয়ে নিয়মিত ব্রাশ করলে দাঁতের হলুদ ভাব একেবারে চলে যায়। সেই সঙ্গে দাঁতে বিভিন্ন রোগের প্রকোপও হ্রাস পায়।

Girl in a jacket

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।