চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ১৯ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দর্শনা পৌরসভার প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ডিসি বরাবর অভিযোগ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুলাই ১৯, ২০২২ ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

দর্শনা অফিস: ট্রেড লাইসেন্স না দেয়ায় দর্শনা পৌরসভার প্রকৌশলী সাজেদুর রহমানের বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ করেছেন জাহিদুল ইসলাম নামের এক ব্যবসায়ী। গতকাল সোমবার দুপুর ১টার দিকে তিনি এ অভিযোগপত্র জমা দেন।

জানা যায়, চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনা পৌরসভার পুরাতন বাজারের আবুল কাসেমের ছেলে জাহিদুল ইসলাম রেলবাজারের আক্তারুল ইসলাম সুপার মার্কেটে তার নতুন প্রতিষ্ঠান রৌদ্র টেলিকম নামে একটি দোকান দিয়েছেন। ওই দোকানের পৌর ট্রেড লাইসেন্সের জন্য গত ১৪ জুলাই যান দর্শনা পৌরসভার ট্রেড লাইসেন্স দায়িত্বপ্রাপ্ত মমিনুলের কাছে। ট্রেড লাইসেন্সের ফি জমাও দেয়। ট্রেড লাইসেন্সটি হস্তান্তর করার আগে ওই মার্কেটের পৌর ট্যাক্স বাকি থাকায় পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান ট্রেড লাইসেন্সটি আটকে দেয়। পরের দিন মার্কেটের মালিক পক্ষ পৌর ট্যাক্স পরিশোধ করলে গত ১৭ জুলাই রোববার সাড়ে ১১টার দিকে জাহিদুল তার দোকানের ট্রেড লাইসেন্সটি আনতে গেলে প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান ট্রেড লাইসেন্স দেব না বলে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন এবং ট্রেড লাইসেন্সটি দেননি। ট্রেড লাইসেন্সের জন্য তিনি ঠিকমত ব্যবসা করতে পারছেন না। তাই প্রকৌশলী সাজেদুর রহমানের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থাগ্রহণের জন্য অভিযোগপত্র দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে ৭নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাবির হোসেন মিকা লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার ওয়ার্ডের ব্যবসায়ী জাহিদুল ইসলামের নতুন দোকানের ট্রেড লাইসেন্সের জন্য বিধি মোতাবেক কাগজপত্র ও লাইসেন্স ফি জমা দেয়া সত্বেও প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান তা আটকে রাখে। পরে আমি জনপ্রতিনিধি হিসাবে নাগরিকের অধিকার আদায়ের জন্য প্রকৌশলী কাছে গেলে তিনি আমার সাথেও অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। এখনও পর্যন্ত সেই নাগরিক ট্রেড লাইসেন্স পাইনি। বিষয়টি চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মহাদয়কে জানিয়েছি।

এ ব্যপারে দর্শনা পৌরসভার প্রকৌশলী সাজেদুর রহমানের সাথে ০১৭৪৯৬৩২৭৩৫ ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ট্রেড লাইসেন্স দেয়ার মালিক আমি নই। আমার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ ভিত্তিহীন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।