চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৪ অক্টোবর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দর্শনা জয়নগর সীমান্তে এক সাংবাদিকের অবৈধ মালামাল আটক করেছে বিজিবি মালামাল ছাড়াতে চলছে উচ্চমহলে দৌড়ঝাঁপ : নীতিভ্রষ্ট সাংবাদিকের বিচারের দাবি সচেতনমহলের

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ৪, ২০১৬ ৮:৩৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

dre

নিজস্ব প্রতিবেদক: দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনাসহ আশপাশ এলাকায় সাংবাদিকতার আড়ালে একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীর সাথে আঁতাত করে নিরীহ মানুষকে নানাভাবে বিপদে ফেলে টাকা আদায়, চাঁদাবাজি, চোরাকারবারী ও লাগেজ ব্যাবসা চালিয়ে আসছে। এসব অবৈধ কারবারের মাধ্যমে অল্প সময়ে বিপুল পরিমান অর্থ-সম্পদের মালিক হয়ে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে গেছে অনেকে। শুরু করেছে নতুন নতুন ব্যবসা। কতিপয় কথিত সাংবাদিকের নানা অপকর্মের কারনে এলাকার মানুষের কাছে গোটা সাংবাদিক সমাজ আজ হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছেন। নানা অপকর্ম করে সাংবাদিকতার মত মহান পেশাকে কলুষিত করে তুলছে। এসব দূর্নীতিবাজ সাংবাদিকদের হয়রানির ভয়ে এলাকার মানুষ নির্বিকার হয়ে পড়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত পরশু রবিবার সকালের দিকে দর্শনা জয়নগর সীমান্তের গোরস্থানের নিকট অভিযান চালিয়ে উথলী বিশেষ ক্যাম্পের বিজিবি মোরশেদ আলমের নেতৃত্বে¡ প্রায় সাড়ে ৭লাখ টাকার শাড়ি ও লেহেঙ্গা পরিত্যাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে। সরকারী রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ভারত থেকে চোরাই পথে আনা এসমস্ত মালামালের মধ্যে রয়েছে ১০৪ পিস শাড়ি ও লেহেঙ্গা। এসব মালামাল গতকাল সোমবার বিজিবি সিজার লিষ্ট করে দর্শনা কাষ্টমসে জমা দিয়েছে। এদিকে কথিত সাংবাদিকদের একটি চোরাচালানী চক্র এসব মালামাল কাষ্টমসের ডিএম করে সরকারী ভ্যাট ট্যাক্স দিয়ে ছাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে বলে গোপন সূত্রে জানা গেছে। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় বেশ কয়েকজন জানান, দর্শনার কতিপয় সাংবাদিক সাংবাদিকতার আড়ালে দীর্ঘদিন ধরে ভারত থেকে চোরাই পথে লাগেজ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। কোন কোন সময় ভারত থেকে আসা যাত্রী হিসাবে কাষ্টমস থেকে ডিএম করে এসব লাগেজের মালামাল ছাড়িয়ে নিয়ে ওই এক কাগজে একাধিক লাগেজ পাচার করে থাকে বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে দর্শনা কাষ্টমস সুপার মোস্তফা কামালের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, অনেক সময় ভারতে যাতায়াতকারী যাত্রীদের লাগেজ সরকারী ভ্যাট-ট্যাক্স দিয়ে ছাড়িয়ে নিতে পারে। যেহেতু এসব শাড়ি লেহেঙ্গা বিজিবি পরিত্যাক্ত আবস্থায় আটক করেছে ও এর কোন মালিক নেই, সেহেতু কাষ্টমসে জমাকৃত এসব মালামাল অন্য কারও কোনভাবে ছাড়িয়ে নেয়ার কোন সুযোগ নেই। এদিকে জনশ্র“তি রয়েছে বিজিবি কর্তৃক আটককৃত ১০৪ পিস মালামাল দর্শনার কথিত এক  সাংবাদিকের। এ সমস্ত মালামাল ছাড়াতে সে ইতোমধ্যে বিভিন্ন মহলে শুরু করেছে দৌড়ঝাপ। এদিকে এসব নীতিভ্রষ্ট চোরাকারবারী সাংবাদিকদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে তাদের অপকর্মের বিচার করে সাংবাদিক সমাজকে কলুষমুক্ত করার আহবান জানিয়েছেন সচেতনমহল।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।