চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ৬ নভেম্বর ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

তাঁদের মিথ্যা কথা বলা দেখে আমি অবাক

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ৬, ২০২০ ১১:১০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

চুয়াডাঙ্গার শেখপাড়ায় রাস্তা নির্মাণকাজের উদ্বোধনকালে মেয়র জিপু চৌধুরী
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু বলেছেন, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার ইতিহাসে আগে কখনো যা হয়নি, এখন তা হচ্ছে। উন্নয়নমূলক কাজের হিসেবে নতুন ইতিহাস তৈরি হয়েছে। আমার পরিষদের মাধ্যমে সবোর্চ্চ টাকার হয়েছে। আরো যে পরিমাণে কাজ আসছে, তা নতুন ইতিহাসের জন্মদিবে। প্রত্যেকটি কাজ পৌর নাগরিকের সেবার মান কয়েকগুণ বৃদ্ধি করছে। কিন্তু এর মধ্যে, কেউ কেউ উন্নয়ন সহ্য করতে না পেরে গুজব ছড়াচ্ছে পৌরসভার কর্মচারীদের বেতন বাকী। আমি স্পষ্ট করে বলে দিচ্ছি, পৌরসভার কোনো কর্মচারীর বেতন বাকী নেই। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার কূলচারা গ্রামের একটি মাত্র ঈদগাহ ময়দানে যাওয়ার রাস্তার নির্মাণকাজের উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন। গুরুত্বপূর্ণ নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের অর্থায়নে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার আওতায় এ নির্মাণকাজের উদ্বোধন করা হয়। দীর্ঘ ৪০ বছরের পুরোনো কুলচারা গ্রামের একটি ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজ আদায় করে ওই গ্রামের মুসল্লিরা। কিন্তু ওই ঈদগাহ ময়দান মাঠের মাঝখানে এবং যাওয়ার জন্য কোনো রাস্তা ছিল না। সামান্য বৃষ্টিতে কাঁদা হওয়াসহ ঈদগাহ ময়দানে পৌছানোর জন্য মৃসল্লিদের নানা কষ্ট পোহাতে হতো। এই ঈদগাহ ময়দান করে দেওয়ায় এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে পৌর মেয়রকে ধন্যবাদ জানানো হয়।
এসময় পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু আরো বলেন, এই রাস্তা দিয়ে এই এলাকার মানুষেরা পবিত্র ঈদের নামাজে অংশগ্রহণের জন্য ঈদগাহে যায়। কিন্তু ঈদগাহে যাওয়ার জন্য ভালো রাস্তা ছিল না। আপনারা বলেছেন, আপনাদের জমির ওপর থেকে আপনারা রাস্তা করতে দিবেন। ঈদগাহের জন্য আপনারা নিজেদের জমি ছেড়েছেন, আর আমি আপনাদের জন্য একটি রাস্তা করে দেওয়ার ব্যবস্থা করতে পারবো না। আপনারা বলেছিলেন রাস্তার কথা, আমি বলেছিলাম হবে। আজ আপনাদের সেই চাওয়া পূরণ হচ্ছে। আপনারা যেমন আনন্দিত, ঠিক তেমনি আমিও অনেক খুশি।
রাস্তার উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রিড়া বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. শফিকুল ইসলাম শফি, চুয়াডাঙ্গা পৌর সভার কাউন্সিলর আবুল হোসেন, শেফালী খাতুন, সহকারি প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান কাওসার, জেলা কৃষকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ দীপন, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি মজনুল হক পচা, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা কবির হোসেন, সবুজ, সামাদ, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন জ্যাকি, সদর থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সুমন রেজা, সহসভাপতি শাহিন, কূলচারা ঈদগাহ ও কূলচারা জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি আকমল হোসেন বিশ্বাস, ৭নং ওয়ার্ড কৃষকলীগের সভাপতি আবুল কাশেম, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কবির হোসেন, সবুজ, সামাদ, ইমাম হাফেজ কামরুল হাসান, ছাত্রলীগ নেতা তরিকুল, আশিক, শিপন, পারভেজ, আলামিন, সজল, রাজিব, স্থানীয় বাসিন্দা ওসমান, মোজাম্মেল হক, হাফিজুর রহমান, আসমাইল বিশ্বাস, মুক্তার হোসেন, লিটন আলী, সিদ্দিক আলী, উজ্জ্বল হোসেন, জানা, মফিজুল প্রমূখ।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।