ঢাকায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ দলীয় কার্যালয়ে জামায়াত-বিএনপির সন্ত্রাসীদের হামলার প্রতিবাদে

460

চুয়াডাঙ্গায় সেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা
ডেস্ক রিপোর্ট: ঢাকা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ দলীয় কার্যালয়ে জামায়াত-বিএনপির সন্ত্রাসীদের হামলায় ১৭ জন দলীয় নেতাকর্মি আহত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশসহ প্রতিবাদ সভা করেছে করেছে চুয়াডাঙ্গা জেলা সেচ্ছাসেবক লীগ ও জেলা ছাত্রলীগ।
নিজস্ব প্রতিবেদক জানিয়েছে, ঢাকা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ দলীয় কার্যালয়ে জামায়াত-বিএনপির সন্ত্রাসীদের হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে চুয়াডাঙ্গা জেলা সেচ্ছাসেবক লীগ। গতকাল শনিবার রাতে এ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। চুয়াডাঙ্গা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু ও যুগ্ম আহবায়ক মতিয়ার রহমান মতির নেতৃত্বে মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শহীদ হাসান চত্বরে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সমাবেশে প্রথমে বক্তব্য প্রদান করেন, বাংলাদেশ কৃষক লীগ, চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান কবির। প্রতিবাদ সমাবেশের সমাপণী বক্তব্য দেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার আহবায়ক ও পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু।
তিনি তার বক্তব্যে, কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের জিম্মি করে জামায়াত-বিএনপি’র সন্ত্রাসীরা বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করতে না পারে তার জন্য সাধারণ জনগনকে সজাগ থাকার আহবান জানান। সেই সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে সকল নেতাকর্মিকে রাজপথে থাকার উদাত্ব আহবান জানান।
প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন জেলা কৃষক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নেফাউর রহমান (ডেভিড), সদর থানা কৃষক লীগের আহবায়ক আব্দুল মতিন দুদু, পৌর কৃষক লীগের আহবায়ক রাকু, যুগ্ম আহবায়ক আরিফুল, কৃষক লীগ নেতা রাব্বী, দয়াল, ময়েন, জিয়া উদ্দিন বিশ্বাস, মাহবুল ইসলাম সেলিম, আবুল হোসেন মিলন, আব্দুর রাজ্জাক, মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, হাফিজুর রহমান কালু, আতিউর রহমান বিপ্লব, ইমরান আহমেদ বিপ্লব, সাইফুল ইসলাম, কফিল উদ্দিন, জাহিদুর রহমান মুকুল, সৈয়দ ফরিদ আহমেদ, মাফিজুর রহমান মাফি, আনিসুর রহমান, আসাদুজ্জামান সবুজ, আবু তাহের, আলীম, শরীফ হোসেন, কবির হোসেন, আব্দুর রহিম, খায়রুল ইসলাম, তারিকুল ইসলাম টুকুল, আব্দুস সামাদ ও আশরাফুজ্জামান নান্নু, চুয়াডাঙ্গা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের রাশিদুল ইসলাম (পাপেল)।
এছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির হোসাইন জ্যাকি, সদর থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সুমন রেজা, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য ইমদাদুল হক সজল, ইমরান-১, ইমরান-২, হালিম, চুয়াডাঙ্গা পৌর ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোমিনুল ইসলাম (হাসান), সহ-সভাপতি- জাহাঙ্গীর, দপ্তর সম্পাদক সেক সামী তাপু, ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক সেলিম উদ্দীন পিন্টু, পৌর ছাত্রলীগ নেতা ইব্রাহিম শেখ ইমরান, ফয়সাল, সজীব, সেফদুল, চুয়াডাঙ্গা সরকারী কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সোহাগ, নিপ্পন, সেবা, জাভেদ আকিব, সাইফুল, বিপ্লব, ইনামুল, শেখ শাওন, ইসতিয়াক সিথুন, আরাফাত প্লাবন, ফারহান রাব্বী, আরফিন সজীব, নিশান, জিতু, রাজন, রাব্বী, রকিবুল, আশিক, সুমন, মেরাজ, মেহেদি, জাহিদ, বাধন, আসিফ, মাহফুজ, নাহিদ, হিমু, আনিছ বুদো প্রমূখ। প্রতিবাদ সমাবেশের সভা পরিচালনা করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের সদস্য এ্যাড. মো. তসলিম উদ্দীন ফিরোজ।
শহর প্রতিবেদক জানিয়েছে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলায় ১৭জন দলীয় নেতাকর্মি আহত হওয়ার ঘটনায় প্রতিবাদ ও চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ। গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে জেলা শহরের চৌরাস্তা মোড়, কোর্ট মোড় ও কলেজ রোড হয়ে কবরি রোড হয়ে দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। পরে সেখানে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাহাবুল হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সামসুজ্জোহা মল্লিক হাসু। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা যুবলীগের অন্যতম সদস্য হাফিজুর রহমান হাফু। আরো বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি রুবায়েত বিন আজাদ সুস্থির, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শফি উদ্দিন টিটু, সাবেক ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ জোয়ার্দ্দার, সাবেক সহ সম্পাদক বাপ্পি, সাবেক প্রচার সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাবেক স্কুল ও ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক রাজু আহম্মেদ, পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি জাবিদুল ইসলাম জাবিদ ও শিমুল লস্কর।
এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সমাজ সেবা বিষয়ক সম্পাদক বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ চুয়াডাঙ্গার সাধারণ সম্পাদক লোটাস জোয়ার্দ্দার, যুবলীগ নেতা মন্টা, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আশিক ইকবাল স্বপন, বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ চুয়াডাঙ্গা জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক বরকত হাসান জোয়ার্দ্দার, ছাত্রনেতা সোয়েব রিগান, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা শাকিল আহম্মেদ জিম, তানভির আহম্মেদ সোহেল, সদর থানা ছাত্রলীগ নেতা রেদওয়ান আহম্মেদ রানা, আল মোমিন, জান্নাত, টোকন, উজ্জল, হোস্টেল ছাত্রলীগ নেতা ইসরাইল, আলিফনুর, জুয়েল রানা, মিরাজ, রবিন, রুদ্র, আলামিন, অভি, রাব্বি, ইমন, শাওন, ফিরোজ, বিপুল, মিঠুন, আলিফ, সাদাফ, মেশা, তাজ, রাতুল, আকাশ, সোহাগ, রিমন, রামিম, রাজাবুল, আলম, মুন্তাজ, বাবুল, নাইম, আতিক, রুবেল, তরুণ, রিয়নসহ চুয়াডাঙ্গা জেলা, সরকারি কলেজ, পৌর ও সদর থানা ছাত্রলীগের নেতাকর্মিরা। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক গ্রন্থনা ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মেহেদী হাসান হিমেল।