চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ডেঙ্গু-করোনার দাপট বাড়ছেই

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২ ৯:০৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও ডেঙ্গুতে আরও দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এক দিনেই হাসপাতালে নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ৪৬০ জন ডেঙ্গু রোগী। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় টানা দ্বিতীয় দিনের মতো ৭০০-এর বেশি কভিড রোগী শনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫.৪২ শতাংশ, যা ৭৯ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ। এক দিনের ব্যবধানেই শনাক্তের হার বেড়েছে ১.৮৪ শতাংশ। স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যানুযায়ী, হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীর চাপ প্রতিদিনই বাড়ছে। গত ২৬ সেপ্টেম্বর সোমবার দেশে এক দিনে সর্বোচ্চ ৪৮২ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন আরও ৪৬০ জন। এ নিয়ে সারা দেশে হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৭৩৮ জনে, যা আগের দিন ছিল ১ হাজার ৬৯২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। গতকাল অধিদফতরের প্রতিবেদনে বলা হয়, গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ৪৬০ জনের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা ৩২০ জন। এ ছাড়া ঢাকার বাইরের ১৪০ জন। স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যমতে, চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন সর্বমোট ১৪ হাজার ৮২২ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ১৩ হাজার ৩০ জন। চলতি বছরে ডেঙ্গুতে ৫৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। গত ২১ জুন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে চলতি বছরের প্রথম মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। এদিকে সাত সপ্তাহ পর গত সোমবার দেশে আবারও দৈনিক ৭ শতাধিক কভিড রোগী শনাক্তের খবর জানায় স্বাস্থ্য অধিদফতর। ওই দিন শনাক্ত হয় ৭১৮ জন। নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ছিল ১৩.৫৮ শতাংশ। গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছে ৭৩৭ জন। শনাক্তের হার ছিল ১৫.৪২ শতাংশে। এক দিনের ব্যবধানে শনাক্তের হার ও সংখ্যা উভয়ই বেড়েছে। গত এক দিনে ৪ হাজার ৭৮১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এই সময়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪১১ জন করোনা রোগী। মারা গেছেন একজন। মৃত ব্যক্তিটি কুড়িগ্রাম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৭৩৭ জনের মধ্যে ৫১৬ জনই ঢাকা জেলার বাসিন্দা। ১৮ জেলায় কোনো রোগী শনাক্ত হয়নি। এর মধ্যে ১১ জেলায় কোনো নমুনা পরীক্ষা হয়নি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।