চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৩১ মে ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ডলারের বাজার নিয়ন্ত্রণে বিকল্প খুঁজছে সরকার

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
মে ৩১, ২০২২ ১০:২৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: ডলারের বাজার স্থিতিশীল ও টাকার মান ধরে রাখতে বিশ্ববাজারের লেনদেনের বিকল্প মাধ্যম খুঁজছে সরকার। বিকল্প হিসেবে সিঙ্গাপুর ও হংকংয়ের কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের সেবা গ্রহণের চিন্তাভাবনা চলছে। গতকাল সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। এর আগে গত রোববার ব্যাংকগুলোর মাঝে লেনদেনের ক্ষেত্রে ডলারের স্ট্যান্ডার্ড দর নির্ধারণ করে দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক।  ডলারের আন্তঃব্যাংক বিনিময় মূল্য ৮৯ টাকা ও আমদানির ক্ষেত্রে এ হার ৮৯ টাকা ১৫ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে। গতকাল মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিশ্ববাজারের ডলার লেনদেনের ক্ষেত্রে বিকল্প পন্থা খোঁজার বিষয়ে আলোচনা হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ইতিমধ্যে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বসেছেন। গত রোববার কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডলারের দাম ৮৯ টাকা নির্ধারণ করে দিয়েছে। বাজার স্থিতিশীল রাখতে আরও চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। হংকং, সিঙ্গাপুর থেকে নতুন কিছু পেমেন্ট সিস্টেম ডেভেলপ করেছে।

সেগুলো খুঁজে দেখতে বলা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, সুইফট ছাড়াও হংকং ও সিঙ্গাপুরের কিছু কোম্পানি একাধিক পেমেন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে ফান্ডিং অফার করছে। হংকং থেকে ৪/৫ বিলিয়ন ডলারের একটা ফান্ডিং আসছে। শুধু বাংলাদেশের জন্য তা নয়। অফারের বিস্তারিত সম্পর্কে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, কোম্পানিগুলো বলছে, তোমরা যদি আমাদের সঙ্গে চুক্তিতে আসো তোমরা যখন আমদানির জন্য এলসি ওপেন করবে সেই এলসির বিপরীতে খুব কম ইন্টারেস্টে আমরা সরবরাহকারী বিদেশি কোম্পানিকে মূল্য পরিশোধ করে দেবো। যখন তুমি এক্সপোর্ট করবে, হয় তুমি আমাদের ক্যাশে পেমেন্ট করে শোধ করতে পারবে। অথবা এক্সপোর্টের সময় আমার টাকাটা ওখানে যাবে আর তোমার বাড়তি টাকা দেশে চলে আসবে। ডলারটা কিন্তু অব্যবহৃত থেকে গেল। এরকম কিছু সুবিধা সিঙ্গাপুর থেকে অফার করা হচ্ছে বিভিন্ন দেশে। বাংলাদেশ ব্যাংক ইতিমধ্যে এসব নিয়ে কাজ করছে। ওনাদের সঙ্গে বিস্তারিত আলাপ হয়েছে কীভাবে আমরা এই জায়গায় সহজে যেতে পারি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।