চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৬ ডিসেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ট্রাক ড্রাইভারদের হাতে ডেকরেশন কর্মচারী শফিকুল মোল্লা রক্তাক্ত জখম

সমীকরণ প্রতিবেদন
ডিসেম্বর ৬, ২০১৬ ১:৩১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

DSC01458আলমডাঙ্গা অফিস: গতকাল আলমডাঙ্গা মুন্সিগঞ্জ পশুহাটে ট্রাক ড্রাইভার সুজন মোল্লা লোড ট্রাক সাইড করতে গেলে আকষ্মিকভাবে ট্রাক ড্রাইভার ফারুক, ট্রাক ডাইভার সুজন, ট্রাক ডাভার কোরবার, কোলি, সাহাদত, সুজন মোল্লাকে বেধরক মারপিট করতে শুরু করে। তাদের আঘাতে সুজন মোল্লার একটি দাঁত ভেঙে যায়। এ সময় সুজন মোল্লার ভাই শফিকুল মোল্লা ডেকরশনের মালামাল নিয়ে পশু হাটের কাছে পৌঁছালে দেখতে পায় তার ভাইকে চরম মারধর করছে। শফিকুল এগিয়ে গেলে উল্লেখিত ড্রাইভাররা শফিকুল মোল্লাকেও রড দিয়ে চরম মারধর করলে তার মাথা ফেটে বেশ কয়েক জায়গায় রক্তাক্ত জখম হয়। জানাযায়, আরজেদ আলীর ছেলে ফারুক ড্রাইভার, সামসুল হকের ছেলে সুজন ড্রাইভার, সাহাদত মল্লিকের ছেলে কোরবান ড্রাইভার, জাকের ড্রাইভারের ছেলে কলি ড্রাইভার উভয় সাং- খুদিয়াখালি। তারা মুন্সিগঞ্জ দক্ষিণ গোবিন্দপুরের রশিদ মোল্লার ছেলে শফিকুল মোল্লা ও সুজন মোল্লাকে পশুহাটের কাছে বেধরক মারপিট করে। এক পর্যায়ে শফিকুল মোল্লা রক্তাক্ত জখম হলে আসপাশের লোক তাকে তুলে আলমডাঙ্গা হারদী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। শফিকুল মোল্লা জানায়- তার পোকেটে থাকা ডেকরেশন মালিক হুমায়ূন কবীরের ১৬হাজার টাকা ও ১টি দামি মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। বর্তমানে সে আসঙ্কাজনকভাবে চিকিৎসাধীন আছে। এ ব্যাপারে শফিকুল মোল্লা ও তার পরিবার থানায় মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।