টি-টোয়েন্টি সিরিজ পাকিস্তানের

51

খেলাধুলা প্রতিবেদন:
মোহাম্মদ রিজওয়ান ও বাবর আজম ফিফটি বঞ্চিত হলেও তাদের চল্লিশ ছাড়ানো দুটি ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকাকে শেষ টি-টোয়েন্টিতে ৪ উইকেটে হারালো পাকিস্তান। তাতে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-১ এ জিতলো তারা। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টস জিতে ফিল্ডিং নিয়ে দুর্দান্ত বোলিং করেছিল পাকিস্তান। ৬৫ রানেই তারা সফরকারীদের ৭ উইকেট তুলে নেয়। কিন্তু ডেভিড মিলার ঝড়ে ৮ উইকেটে ১৬৪ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। ৪৫ বলে ৫ চার ও ৭ ছয়ে ৮৫ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। মিলার ছাড়া ১৭ বলে ২৭ রান করে ছোট্ট অবদান রাখেন জান্নেমান মালান। ৮ রানে অপরাজিত থাকা লুথো সিপামলার সঙ্গে ৫৮ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন মিলার। পাকিস্তানের পক্ষে অভিষেক ম্যাচে লেগস্পিনার জাহিদ মাহমুদ সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন। দুটি করে পান মোহাম্মদ নওয়াজ ও হাসান আলী। লক্ষ্যে নেমে রিজওয়ান ও হায়দার আলীর ৫১ রানের জুটি ভালো শুরু এনে দেয়। হায়দার ১৫ রানে বিদায় নেওয়ার পর রিজওয়ানকে ৪২ রানে এলবিডাব্লিউ করেন তাবরাইজ শামসি। দ্রুত ফিরে যান হুসেইন তালাত (৫)। ৩০ বলে ৫ চার ও ১ ছয়ে ইনিংস সেরা ৪৪ রানে ডোয়াইন প্রিটোরিয়াসের শিকার হন বাবর। তখন ১৪ ওভারে দলের স্কোর ৪ উইকেটে ১১২ রান। পরের তিন ওভারে আরও দুটি উইকেট হারায় পাকিস্তান। তবে মোহাম্মদ নওয়াজ ও হাসান ঝড় তোলেন। তাতে শেষ ওভারে ১৬ রান দরকার ছিল দলের। প্রথম বলে নো হয় এবং ছয় মারেন হাসান। পরে আরও একটি এক্সট্রা রানে শেষ চার বলে ৬ রান দরকার ছিল তাদের। তৃতীয় ও চতুর্থ বলে চার ও ছয় মেরে দলকে জেতান হাসান। ১৮.৪ ওভারে ৬ উইকেটে ১৬৯ রান করে পাকিস্তান।