ঝিনাইদহ গণপুর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী বরখাস্ত

411

প্রধানমন্ত্রী ও জাতীয় পতাকা অবমাননা করে ফেসবুকে অশালীন মন্তব্য

ঝিনাইদহ অফিস: ঝিনাইদহ গনপুর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জাকির হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ও জাতীয় পতাকা অবমাননা করে ফেসবুকে বিভিন্ন অশালীন মন্তব্য করায় ৯ অক্টোবর গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব শহীদ উল্লাহ খন্দকার সাময়িক বরখাস্তের প্রজ্ঞাপন জারী করেন। আদেশের কপি বুধবার দুপুরে ঝিনাইদহ গণপুর্ত অফিসে এসে পৌছায়। প্রজ্ঞাপনের আদেশে বলা হয়েছে, ঝিনাইদহ গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জাকির হোসেন তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে প্রধানমন্ত্রী এবং জাতীয় পতাকাকে অবমাননা করে বিভিন্ন ধরনের অশালীন মন্তব্য করেছেন, যা সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ১৯৮৫ এর বিধি ৩ (৫) অনুযায়ী অসদাচরণের শামিল। তাই তাকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।
জানা যায়, ঝিনাইদহ গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জাকির হোসেন তার ফেসবুক আইডিতে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, সচিব, পুলিশ, আমলা ও উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তাসহ সবাইকে নিয়ে নানা ধরনের মন্তব্য করেছেন। ১৩ মার্চ একই সময় তার আইডিতে তিনি বাংলাদেশের প্রথম সারির জাতীয় দৈনিকের সম্পাদককে নিয়ে কটুক্তিমূলক নাস্তিক ও ইহুদিদের দালাল বলে সম্বোধন করেন। অভিযোগ রয়েছে, তিনি নিজেকে ইতিমধ্যে জামায়াতের লোক হিসাবে পরিচয় দিয়েছেন। এত সব বিতর্কিত কর্মকা-ের কারণে কিভাবে তিনি উচ্চপদে চাকুরি করেন, তা নিয়ে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। নির্বাহী প্রকৗশলী জাকির হোসেন সম্প্রতি রাজবাড়ী জেলা থেকে ঝিনাইদহে যোগদান করেছেন। তিনি কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বারখাদা গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে।
ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান জানান, জাকির হোসেন জেলা গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে যোগদানের পর তার সম্পর্কে খোঁজ খবর নেয় পুলিশ। তার ফেসবুকে দেশের প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি, সচিবসহ বিভিন্ন ব্যক্তি সম্পর্কে আপত্তিকর পোস্ট পাওয়া যায়। এসব পোস্ট ২০১৩ সালে দেশব্যাপি তা-ব ও আগুন সন্ত্রাসকালে দেওয়া হয়। তারপর তিনি ব্রিটেনে পড়াশুনা করতে যান। এক বছর পর ফিরে এসে ফের যোগদান করেন।
পোস্টগুলো এতদিন ধরে তার ফেসবুকে রয়ে যায়। তাকে পুলিশ সুপারের অফিসে ৪ আগস্ট ডেকে এনে আপত্তিকর পোস্টগুলো সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তবে সঠিক উত্তর দিতে পারেননি। এ বিষয়ে জাকির হোসেন জানান, আমি যখন ইংল্যান্ডে ট্রেনিংয়ে ছিলাম তখন আমার আইডি হ্যাক করে এমন করা হয়। বিষয়টির সাথে আমি জড়িত নয়। নির্বাহী প্রকৌশলী জাকির হোসেন রাজবাড়ী থেকে ঝিনাইদহ গনপুর্ত বিভাগে নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে যোগদান করেন।