চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ঝিনাইদহে বখাটের ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্রী আহত

সমীকরণ প্রতিবেদন
সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৭ ১:০৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঝিনাইদহ অফিস: ঝিনাইদহ শহরের লক্ষিকোল গ্রামে হত্যাসহ একাধিক মামলার আসামী আব্দুল হাকিম নামে এক বখাটে সন্ত্রাসীর ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্রী (১৪) আহত হয়েছে। সে স্থানীয় আনোয়ার জাহিদ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী। তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে মেয়েটি প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার পথে ঝিনাইদহ শহরের লক্ষিকোল গ্রামের মসজিদের পাশে এ ঘটনা ঘটে। ঝিনাইদহ সদর থানায় মেয়েটির মা রুমি খাতুন একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ বখাটে হাকিমকে গ্রেফতারে কয়েক দফা অভিযান চালিয়েছে। মা রুমি খাতুন অভিযোগ করেন, গত তিন মাস ধরে তার মেয়েকে উত্যক্তসহ কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছে লক্ষিকোল গ্রামের শাহাদত হোসেন শাখার ছেলে আব্দুল হাকিম। বিষয়টি পারিবারিক ভাবে সমাধানের জন্য অনেকবার চেষ্টাও করলে বখাটে হাকিম আমাদের উপর ক্ষুদ্ধ হয়। তিনি আরো জানান, মঙ্গলবার বিকাল ৪টার দিকে তার মেয়ে লক্ষিকোল গ্রামে মাওলানা আব্দুস সবুরের বাড়িতে কোরআন শিক্ষার জন্য যাচ্ছিল। এ সময় স্থানীয় জামে মসজিদের পাশে ওৎ পেড়ে থাকা হত্যা, ছিনতাই ও কোপানোসহ ৫ মামলার আসামী আব্দুল হাকিম মেয়েটিকে কু-প্রস্তাব দেয়। বখাটের প্রস্তাবে সাড়া না দিয়ে চলে যাওয়ার সময় তার ওড়না ধরে টানাটানি শুরু করে। এতে মেয়েটি প্রতিবাদ জানালে সন্ত্রাসী আব্দুল হাকিম তার তলপেট লক্ষ্য করে ছুরিকাঘাত করে। ছুরির আঘাত ঠেকাতে গিয়ে মেয়েটির ডান হাতের আঙ্গুল কেটে যায়। মেয়েটির চিৎকারে ঘটনার সাক্ষি লক্ষিকোল গ্রামের মশিয়ার রহমান, রজব আলী ও ওমর আলীসহ পাড়া প্রতিবেশিরা ছুটে আসলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। বিষয়টি পুলিশ বা প্রশাসনকে জানালে খুন জখমের হুমকী দেওয়া হয় বলে স্কুল ছাত্রীর ভাই আব্দুর রহমান জীবন অভিযোগ করেন। ভয়ে মেয়েটি স্কুলে যাওয়াবন্ধ করে দিয়েছে। এ বিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি এমদাদুল হক শেখ বুধবার দুপুরে জানান, আমরা অভিযোগ পেয়ে গত রাতেই বখাটে যুবককে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছি। কয়েক দফা তার বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে, কিন্তু পাওয়া যায়নি। তিনি বলেন বখাটে আব্দুল হাকিম খারাপ প্রকৃতির ছেলে। তার বিরুদ্ধে হত্যাসহ বেশ কয়েকটি মামাও রয়েছে। ওসি দাবী করেন বাদীপক্ষ আসামীদের বাড়িঘর ভাংচুর চালিয়ে তছনছ করেছে বলে আমাদের কাছে খবর আছে। আমরা উভয় বিষয়টি তদন্ত করছি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।