ঝিনাইদহে ফেসবুকে হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

28

প্রতিবেদক, ডাকবাংলা:
ঝিনাইদহে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তি ও কুরুচিপূর্ণ ভাষা ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে হিন্দু সম্প্রদায়ের এক যুবকের বিরুদ্ধে।
জানা গেছে, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সাগান্না ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বৈডাঙ্গা গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের কনক কুমারের ছেলে হরিণাকুণ্ডু লালন শাহ কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র সমীর কুমার (২২) কয়েক মাস ধরে নিজের ফেসবুক আইডি (সমীর কুমার) থেকে একটি গ্রুপ (যুক্তি দিয়ে কথা হবে) কমেন্টস বক্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ভাষায় মন্তব্য করেন। যা দ্রুত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এতে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।
এদিকে, এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা গতকাল মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঝিনাইদহ-চুয়াডাঙ্গা মহাসড়কের বৈডাঙ্গা বাজারে একটি বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচিতে সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেন। মানববন্ধন ও বিক্ষোভের পর ঝিনাইদহ-চুয়াডাঙ্গা মহাসড়কের বৈডাঙ্গা নামক স্থানে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সমীর কুমারের শাস্তির দাবিতে সড়ক অবরোধ করেন। এতে করে ঝিনাইদহ-চুয়াডাঙ্গা মহাসড়কে সাময়িকভাবে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে পরিবেশ শান্ত করেন এবং ব্যবস্থা গ্রহণের সবাইকে আশ্বাস দেন। তদন্ত সাপেক্ষে সমীর কুমার দোষী হলে তাঁকে খুব দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হবে।
মানববন্ধনে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা বলেন, এদের মতো দুঃসাহস মানব ইতিহাসে আগে কেউ কখনো দেখায়নি। আল্লাহর রাসুলের অবমাননা করা হবে, আর মুসলিমরা চুপ করে থাকবে, এটা কখনোই হতে পারে না। এ ধরণের বিধর্মীদের বিরুদ্ধে আমাদের অবশ্যই প্রতিবাদী হতে হবে।