চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ৯ নভেম্বর ২০১৬

ঝিনাইদহে পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর ৫দিন ধরে নিখোঁজ স্ত্রীর দাবী স্বাভাবিক জীবনেও ভাল থাকতে পারছেন না রবি

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ৯, ২০১৬ ২:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ শহরের চাকলা পাড়ার এক সময়ের চিহ্নিত সাবেক মাদক ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম রবি ভাল হতে চান। কিন্তু বিশেষ মহল তাকে ভাল হতে দিচ্ছে না। স্বাভাবিক জীবন যাপন করে এনজিও প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে রবি সামাজিক উন্নয়নের কাজ করতে চাইলেও পদে পদে বাঁধা আসছে। মাদক ব্যবসা ছেড়ে তিনি এখন “রবির আলো সমাজ কল্যান সংস্থা” নামে একটি এনজিও পরিচালনা করছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ঝিনাইদহ পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত আবেদনে রবির স্ত্রী মোছাঃ কোকিলা আক্তর রানু এক মানবিক আবদনে জানিয়ে এসব তথ্য জানান সাংবাদিকদের। আবেদনে স্ত্রী কোকিলা আক্তর রানু উলে¬খ করেন গত নভেম্বর রাত ৮টার দিকে আমার স্বামী মোবাইল কেনার জন্য ঝিনাইদহ শহরের যান। ঝিনাইদহ শহরের প্রধান ডাকঘরের সামনে ভাই শাহীনের সাথে থাকাবস্থায় সাদা পোশাকে পুলিশ প্রশাসনের লোক পরিচয় দিয়ে স্বামী রবিকে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যান। যার মাইক্রোবাস নং-চট্ট মেট্রো-চ-৫১-০০৭৪। মাইক্রোবাসের ড্রাইভারের নাম ইমরান বলে পরে আমরা জানতে পরেছি। এরপর হইতে আমার স্বামীর কোন সন্ধান পাচ্ছি না। পুলিশ বা ডিবির লোকেরা আমার স্বামীকে আটকের কথা অস্বীকার করছে। আমি সদর থানায় ডায়েরি করতে গেলেও আমার ডায়েরী গ্রহন করা হয়নি। এখন আমার স্বামীর ব্যবহৃত মোবাইল ফোন নং-০১৯২৮-৫৬৩৮৫৮ বন্ধ পাওয়া যাইতেছে। স্বামীকে না পেয়ে আমি অথৈ সাগরে পড়েছি। কলেজ পড়–য়া দুইটি কন্যা এবং আমার পরিবারের লোকজন মর্মাহত। আমার স্বামীর খোঁজ না পেলে কন্যা দুইটি অসহায় হয়ে যাবে। বন্ধ হয়ে যাবে তাদের লেখাপড়া। কোকিলা আক্তর রানু জানান, আমার শ্বাশুড়ী অতি বৃদ্ধা এবং অন্ধ। ছেলের শোকে তিনিও মৃত্যু শয্যায় শায়িত আছে। যে কোন সময় তিনি ইন্তেকাল করতে পারেন। কোকিলা আক্তার রানু মানবিক কারণে স্বামীকে ফেরৎ দাবী পাওয়ার দাবী জানিয়েছেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।