ঝিনাইদহে অটোর রাইচ মিলের ম্যানেজার কোটি কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা!

220

Asadul-Pictureঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহে ইফাদ অটোর রাইচ মিলের ম্যানেজার আশাদুল ইসলাম ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের চারকোটিরও বেশি টাকা নিয়ে লাপাত্তা হয়েছে। তাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এ নিয়ে চাল ব্যবসায়ীদের মাঝে তোলপাড় শুরু হয়েছে। প্রতারক আশাদুল ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নাথকুন্ডু গ্রামের আজিম উদ্দীন ফকিরের ছেলে। সদর উপজেলার ডাকবাংলা ত্রিমোহনী এলাকার ইফাদ অটোর রাইচ মিলের মালিক ও সাগান্না ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলাউদ্দীন আল-মামুন জানান, বিশ্বস্ততার সুযোগ নিয়ে তার প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার কয়েক কোটি টাকা হােিতয় নিয়ে পালিয়ে গেছে। তিনি বলেন, বরিশালের এক পার্টির কাছ থেকে তিন কোটিসহ ২০১১ সাল থেকে এ পর্যন্ত কত কোটি টাকার ঘাপলা করেছে তা হিসাব করতে হবে। তিনি জানান, গত শনিবার বরিশালের ফড়িয়াপট্টি মোকামের আড়ৎদার জাহাঙ্গীর, শহিদ ও দিপকসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ীর কাছে হিসাব করে চালের টাকা আনতে যায়। এ সময় ম্যানেজর আশাদুলের সাথে আলাউদ্দীন আল-মামুনের ট্রাকের ড্রাইভার ও হেলপাররা ছিলেন। হিসাব নিকাশ করার এক পর্যায়ে প্রায় তিন কোটি টাকার ঘাপলা ধরা পড়ে। হিসাবে গরমিল দেখেই ম্যানেজার আশাদুল পালিয়ে যায়। ম্যানেজার আশাদুল ২০১১ সালের পর থেকে জাল জোচ্চুরি, চাল পালিস করাসহ বিভিন্ন খাতের প্রায় আট কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে একটি সূত্র জানান। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর থানায় ইফাদ অটোর রাইচ মিলের মালিক আলাউদ্দীন আল-মামুন একটি জিডি করেছেন, যার নাম্বার ৭৫৪।