চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ৬ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ঝিনাইদহের হলিধানীতে নারীকে মারধরের অভিযোগ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুন ৬, ২০২২ ৮:২৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

প্রতিবেদক, ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহের হলিধানী ইউনিয়নে পারিবারিক কলহের জের ধরে প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও মারধরের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রোববার সকালে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হলিধানী ইউনিয়নের প্রতাবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ফুলবাহার (৪৩) ও তাঁর ছেলে ফাহিম (১৪) আহত অবস্থায় ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। আহত ফুলবাহার (৪৩) প্রতাবপুর গ্রামের মৃত সুলতান ফকিরের মেয়ে ও তাঁর পুত্র ফাহিম  হোসেন (১৪)। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বাদী-বিবাদী সম্পর্কে আপন ভাই-বোন। ফুলবাহার অনেকদিন যাবত তার বড় ভাই দীন ইসলামের অত্যাচারের শিকার হচ্ছেন। অভিযোগে জানায়, ফুলবাহারের পিতা সুলতান ফকির মৃত্যুর আগে তাকে ১০ শতাংশ জমি রেজিস্ট্রি করে দিয়ে গেছেন। এটা স্বাভাবিকভাবে মেনে নিতে পারেনি তাঁর বড় ভাই দীন ইসলাম। তাই ফুলবাহারকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করতে কারণে-অকারণে গালিগালাজ ও গাছ-গাছালি কেটে ফেলাসহ নানা অত্যাচার করে। কিছু বললে মারধর করার জন্য তেড়ে আসে। এই অবস্থায় গতকাল রোববার সকালে ফুলবাহার নিজ ঘরের বারান্দায় বসে থাকা অবস্থায় দীন ইসলাম তার বসতবাড়ির মধ্যে প্রবেশ করে বারান্দায় উঠে বাড়ি থেকে বের হয়ে যেতে বলে। সে বাড়ি থেকে বের হতে রাজি না হওয়ায় দিন ইসলাম (৫৫), তাঁর স্ত্রী সাহিদা বেগম (৪৩), ছেলে রতন (১৯) ও ভাই সেলিম (৪০) লাঠিসোটা, লোহার রড দিয়ে অতর্কিতভাবে ফুলবাহারের বাড়িতে আক্রমণ করে এবং তাকে ঘর থেকে বের করে এনে ব্যাপক মারপিট করে। এসময় মাকে ঠেকাতে গেলে ছেলে ফাহিমকেও আঘাত করে গুরুতর আহত করে। পরে গ্রামবাসী গুরুতর জখম অবস্থায় ফুলবাহার ও পুত্র ফাহিমকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

ঝিনাইদহ সদর থানার পরিদর্শক (ওসি, তদন্ত) এমদাদুল হক জানান, মারামারির ঘটনায় বিকেলে একটা অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগ তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।