চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ১ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

জ্বিন দিয়ে চলছে কিডনি ও হার্টের অপারেশন!

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুলাই ১, ২০২২ ৮:২১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ঝিনাইদহ অফিস: ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার কুশনা গ্রামে জ্বিন দিয়ে কিডনি ও হার্টের অপারেশনসহ চলছে নানা রোগের অপচিকিৎসা। কুশনা গ্রামের গোরস্থানপাড়ার শরিফুল ইসলাম কেছিনের বাড়িতে গভীর রাতে এসব রোগের কথিত চিকিৎসার কথা বলে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র। তারা ক্যানসার, হৃদরোগ, কিডনি, হার্নিয়া, অ্যাপেনডিকসসহ নানা জটিল রোগের চিকিৎসা দিচ্ছে বলে কথিত। এমনকি সম্পত্তি দ্বিগুণ ও বিভিন্ন মামলার কাগজপত্র জ্বিন দিয়ে আমেরিকায় পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। আর এভাবেই মানুষকে বিভ্রান্ত করে শরিফুল ইসলাম কেছিনের স্ত্রী রিনা বেগম ও তার বোন দূর-দূরান্ত থেকে আসা নারী-পুরুষ ও শিশুদের চিকিৎসার নামে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। প্রতারণার শিকার অনেকে ভয়ে তাদের কাছ টাকা টাকা চাওয়া বা প্রতিবাদ করার সাহসও পাচ্ছেন না।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হলিধানী ইউনিয়নের কোলা গ্রামের শেফালী খাতুন জানান, ‘আমার শিশুকে মাগুরা হাসপাতালের শিশু ডাক্তার জয়ন্ত কুমার কুণ্ডুর কাছে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। রিপোর্ট দেখে তিনি ঢাকা হার্ট ফাউন্ডেশনে নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। কিন্তু আমরা জ্বিন দিয়ে চিকিৎসার কথা শুনে কুশনা গ্রামের রিনা কবিরাজের কাছে যায়। তারা চিকিৎসার আশ্বাস দিয়ে আমার কাছ থেকে ৫৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। কিন্তু আমার বাচ্চার হার্টের সমস্যার কোনো সমাধান হয়নি। টাকা ফেরতের জন্য গেলে তাদের সাথে এখন দেখায় করা যাচ্ছে না।’

কুশনা গ্রামের বেকারি শ্রমিক আজাহার উদ্দিন জানান, ‘আমার ছেলের বয়স আট বছর। হার্নিয়ার সমস্যা সেরে দেওয়ার কথা বলে ২৫ হাজার টাকা নিয়েছে রিনা ও তার স্বামী।’ এ ব্যাপারে শরিফুল ইসলাম কেছিনের ভাই যশোর বেনাপোল থানায় কর্মরত এসআই মোস্তাফিজুর রহমান হিটলার জানান, ‘আমার ভাবী রানী বেগমের ঘাড়ে জ্বিন আছে এটা আমি বিশ্বাস করি। তার কাছ থেকে অনেকে চিকিৎসা নিয়ে ভালো হচ্ছে, এটা দোষের কিছু না।’

কুশনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহারুজ্জামান সবুজ জানান, ‘বিষয়টি আমিও শুনেছি। এ বিষয়ে থানার ওসির সাথে কথা বলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ এলাকার সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান জানান, ‘তারা দুই বোন গভীর রাতে জ্বিন হাজির করে হার্টের অপারেশন করে বলে শুনেছি। তবে এটি আমার কাছে বিশ্বাস হয়নি।’ কুশনা গ্রামের দোয়ারপাড়ার আলমগীর হোসেন জানান, কেছিনের স্ত্রী রিনা ও তার বোন একই উপজেলার দুধসরা বাসস্ট্যান্ডে বসবাস করেন। মাসে চারদিন এসে রোগী দেখেন এবং অপারেশন করেন। চিকিৎসার নামে এভাবে প্রতারণা করা ঠিক না বলে তিনি জানান।

এবিষয়ে কোটচাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ইউএনও) মঈন উদ্দিন জানান, ‘আমার কাছে এখন পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ দিলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন শুভ্রা রানী দেবনাথ জানান, ‘জ্বিন দ্বারা হার্টের অপারেশন করা সম্ভব না। আমি স্থানীয় স্বাস্থ্যকর্মীকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে তদন্ত করে দেখব। আর যারা প্রতারণার শিকার হয়েছে, তারা সংশ্লিষ্ট থানায় অভিযোগ করার পরামর্শ দিচ্ছি।’

 

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।