জীবননগর মর্নিংস্টার ক্লাবের আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় জীবননগর ক্রীড়া সংস্থার কাছে হাসাদহ রেনেসার্স ক্লাব পরাজিত

352

IMG_3425

জীবননগর অফিস: যুব সমাজটাকে মাদকের ভয়াবহ ছোবলের হাত থেকে রক্ষা করার স্বার্থে এবং জীবননগর ক্রীড়া সংস্থার খেলাধুলার মানোন্নয়নের লক্ষে মর্নিংস্টার ক্লাবের আয়োজনে উপজেলার ৮টি দল নিয়ে নকআউট ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত। গতকাল শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৩টার সময় জীবননগর স্টেডিয়াম মাঠে জীবননগর মর্নিংস্টার ক্লাবের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ ফাইনাল খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়।  খেলার মাঠে টান টান উত্তেজনার মধ্যে খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়। খেলা শুরুর পাঁচ মিনিটের মধ্যে হাসাদহ রেনের্সাস ক্লাবের ১০নং জার্সিধারী নিশান গোল করে দলকে ১-০গোলের ব্যবধানে এগিয়ে নেন। খেলায় উভয় পক্ষের মধ্যে একটি  উত্তেজনা মুখোর পরিবেশে খেলটি অনুষ্ঠিত হয়। খেলটির প্রথমার্ধে সাত মিনিট বাকি থাকতেই জীবননগর ক্রীড়া সংস্থার ১০নং জার্সিধারী খেলোয়ার কাজী সুমন  গোল করলে ১-১গোলে সমতা ফিরিয়ে নিয়ে আসেন। দ্বিতীয়ার্ধে খেলার শুরুতেই উভয়পক্ষে দলকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য প্রাণপনে চেষ্টা করেন। অবশেষে দ্বিতীয়ার্ধে ১৫মিনিটর মাথায় জীবননগর ক্রীড়া সংস্থার ৫নং জার্সিধারী সাইদুর গোল করে ২-১গোলের ব্যবধানে দলকে এগিয়ে নিয়ে যায়। এদিকে দ্বিতীয়ার্ধে আর কোন গোল না হওয়ায় এবং নির্ধারিত সময় শেষ হয়ে যাওযায় রেফারি খেলার শেষ সমাপ্তী বাসি বাজিয়েদেন।  উক্ত ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে চ্যাম্পিয়ান ও রার্নাসআপ দলের খেলোয়ারদের হাতে ট্রফি ও নগদ টাকা তুলেদেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু মো.আ. লতিফ অমল। উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক ফুটবলার মোজাম্মেল হক, আবুল কাশেম, জীবননগর বাজার কমিটির সভাপতি কাজী সাইফুজ্জামান বাবলাসহ আরও উপস্থিত ছিলেন জীবননগর বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও মর্নিংস্টার ক্লাবের সাধারন সম্পাদক হাজী মো. আরিফুল হক, জীবননগর ক্রীড়া সংস্থার টিম ম্যানেজার শাহ শরিফুল ইসলাম ছোট বাবু। উক্ত খেলাটির রেফারি হিসাবে খেলা পরিচালনা করেন আ.সবুর, সহকারী  আ. রকিব কিরণ ও রবিউল ইসলাম। উক্ত অনুষ্ঠানটি সার্বিক পরিচালনা করেন আ. সালাম ঈশা।