চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ৯ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

জীবননগর কৃষ্ণপুরে কৃষি জমিতে সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুলাই ৯, ২০২২ ৮:৩৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের কৃষ্ণপুরে কৃষি জমিতে সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন স্থানীয় কৃষকরা। গতকাল শুক্রবার দুপুর ১২টায় এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তরা বলেন, ‘সিঙ্গাপুরভিত্তিক বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান সাইক্রেটিক এনার্জি লিমিডেট কৃষ্ণপুরের ১৮০ একর কৃষি জমি জোর করে অধিগ্রহণ করে সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের চেষ্টা করছে। এতে সহযোগিতা করছেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগর টগর, তার ব্যক্তিগত পিএস সাখাওয়াত হোসেন সুমন, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রশিদ শাহ ও তাঁর ছেলে নয়ন। সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য জমি দিতে তাঁরা কৃষকদের ভয়-ভীতি দেখাচ্ছেন। মিথ্যা মামলা দিচ্ছে। সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের প্রতিবাদ করায় ইতঃমধ্যে মিথ্যা মামলায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। কৃষকরা এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।’

এ বিষয়ে জানতে রায়পুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রশিদ শাহের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয়। তবে তাঁর নম্বর বন্ধ থাকায় কোনো বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। এদিকে সাইক্রেটিক এনার্জি লিমিডেটের কান্ট্রি ডিরেক্টর মো. জাকির হোসাইনের নম্বর বন্ধ থাকায় কোনো বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। এছাড়া চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগর টগর দেশের বাইরে থাকায় তাঁর বক্তব্যও নেওয়া সম্ভব হয়নি।

উল্লেখ্য, কৃষ্ণপুরে কৃষি জমিতে সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের প্রতিবাদে গত বৃহস্পতিবার স্থানীয় বাসিন্দা ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে কয়েকশ কৃষক বিষের বোতল হাতে ও কাফনের কাপড় পরে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করে। পরে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খানের কাছে স্মারকলিপি দেন। জেলা প্রশাসক বলেন, কৃষি জমিতে কোনো স্থাপনা হবে বলে সরকারের নির্দেশনা রয়েছে। বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।