জীবননগরে স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম!

135

জীবননগর অফিস:
জীবননগরে পূর্বশত্রতার জের ধরে স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে সুবলপুর গ্রামের গরুর ব্যাপারী খলিলের বিরুদ্ধে। গতকাল শনিবার সকাল ১০টার সময় জীবননগর পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের সুবলপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। আহত আওয়াল হোসেন (৩৫) সুবলপুর গ্রামের ইন্তাজুল হকের ছেলে এবং আওয়াল হোসেনের স্ত্রী নাসরিন খাতুন (২৭) এ সময় স্থানীয় জনগণ তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় আওয়াল হোসেন বাদি হয়ে সুবলপুর গ্রামের বাবর আলীর ছেলে খলিলুর রহমানের বিরুদ্ধে জীবননগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
এঘটনায় আহত আওয়াল হোসেন অভিযোগ করে বলেন, খলিল পূর্বশত্রতার জের ধরে আমার এবং আমার স্ত্রীকে দেশীয় হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় স্থানীয় প্রতিবেশী ছুটে এলে সে পালিয়ে যায়।
১নং ওর্য়াড কাউন্সিলর আপিল মাহমুদ বলেন, খলিল এবং আওয়ালের মধ্যে অনেক দিন থেকে একটি বিরোধ চলছে। গতকাল শনিবার যে ঘটনা ঘটেছে এটা একটি তুচ্ছ ঘটনা। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আওয়াল ও তার স্ত্রী কুপিয়ে জখম করেছে খলিল।
জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ মাহমুদ বিন হেদায়েত সেতু বলেন, সুবলপুর গ্রামে যে ঘটনা ঘটেছে এ ঘটনায় স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম করেছে। তাদের দুইজনকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এখন তারা দুজনেই আশস্কমুক্ত।
জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, সুবলগ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে যে ঘটনা ঘটেছে এ বিষয়ে আহত আওয়াল বাদি হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। বিষয়টি তদন্তপুর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।