চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ২০ এপ্রিল ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে মাদক ব্যবসায়ীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার, দুই বিজিবি সদস্য আহত

সমীকরণ প্রতিবেদন
এপ্রিল ২০, ২০২০ ২:২৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

জীবননগর অফিস:

চুয়াডাঙ্গা জীবননগরে মাদককারবারীদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে জসিম নামের এক মাদককারবারী নিহত হয়েছে। রোববার রাতে জীবননগর উপজেলার সীমান্ত ইউনিয়নের নতুনপাড়া গ্রামের ভড়ভড়ে মাঠে এ ঘটনা ঘটে । নিহত মাদককারবারী জসিম উদ্দিন (৩৫) নতুন পাড়া গ্রামের আঃ করিমের ছেলে । এদিকে এ ঘটনায় দুই বিজিবি সদস্য গুরুতর আহত হয়েছে।
নিহত জসিম উদ্দিন স্ত্রী অভিযোগ করে বলেন , রোববার সন্ধ্যায় নতুনপাড়া বিজিবি ক্যাম্পের সদস্য মহিউদ্দিন এবং নতুনপাড়া গ্রামের মাদককারবারী রাসেল জসিমকে বাড়ি থেকে ডেকে বিজিবি ক্যাম্পে নিয়ে যায়।এরপর রাতে আর বাড়িতে ফিরে আসেনি। সোমবার সকালে শুনতে পারি আমার স্বামীর লাশ জীবননগর থানায় পড়ে আছে। তিনি আরো বলেন, আমার স্বামীর নামে মিথ্যা অভিযোগ তুলে বাড়ি থেকে ডেকে তাকে নির্যাতনসহ নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়েছে।

এদিকে, ঘটনা স্থল থেকে ৩২৩ বোতল ফেন্সিডিল ও অস্ত্র উদ্ধার করে জীবননগর থানা পুলিশ। এ ঘটনায় জীবননগর থানায় একটি মাদক, অস্ত্র ও হত্যা মামলা হয়েছে।

সোমবার বেলা ১১টায় ঝিনাইদহ ৫৮-বিজিবির পরিচালক কামরুল আহসান এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গত বোরবার সন্ধ্যায় নতুনপাড়া সীমান্তের ৬৬ নং মেইন পিলারের কাছে নতুনপাড়া গ্রামের ভড়ভড়িয়া মাঠের একটি আম বাগানের মধ্যে থেকে ২৩ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ এলাকার চিহ্নিত মাদককারবারী জসিম উদ্দিনকে আটক করা হয়।পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে একটি মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে নতুনপাড়া গ্রামের ভড়ভড়িয়া মাঠের জনেক আঃ রহমানের আম বাগান থেকে দুটি প্লাস্টিকের মধ্যে থেকে ৩০০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল আটক করা হয়। এ সময় আটককৃত মাদককারবারী জসিম উদ্দিনকে ছিনিয়ে নিতে তার সহযোগীরা বিজিবির টহল দলের উপর আক্রমন এবং গুলি বর্ষণ করে ।এ ঘটনায় টহল দলের দুই বিজিবি জোয়ান গুরুতর আহত হয়।আত্মরক্ষার্থে বিজিবির টহলদল পাল্টা গুলি করলে মাদককারবারীরা পিছু হটে।এ সময় মাদক চোরকারবারী জসিম উদ্দিন গুলিবিদ্ধ হয়।গুলিবিদ্ধ জসিম উদ্দিনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। ঘটনা স্থল থেকে একটি ওয়্যারকাটার , তিনটি কাচি , একটি দা, একটি ছুরা এবং একটি দেশীয় হাসুয়া উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে জীবননগর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে সোমবার (২০ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে জীবননগর থানা পুলিশ নিহতের লাশের ময়য়া তদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। সকাল সাড়ে ১১ টার সময় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডাঃ সোহানা আহমেদকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ঠ মেডিকেল টিম গঠন করে নিহতের লাশের ময়না দতন্ত শুরু হয়।

ময়না তদন্তের বিষয়ে জানতে চাইলে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শামীম কবির বলেন, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে জীবননগর থানা পুলিশ একটি গুলিবিদ্ধ মরদেহ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. সোহানা আহমেদকে প্রধান করে গঠিত মেডিকেল টিমের মাধ্যমে ময়না তদন্ত সম্পন্ন করা হয়। মৃত্যুর সঠিক কারণ ময়না তদন্ত রিপোর্টের মাধ্যমে প্রদান করা হবে।

এদিকে, ময়না তদন্ত শেষে সোমাবার দুপুরে নিহতের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার সকালে নতুনপাড়া গ্রামে মাদককারবারীদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছে।এ সংবাদ শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং সেখান থেকে মাদককারবারীর লাশ উদ্ধারসহ ৩২৩ বোতল ফেন্সিডিল, দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। পরে লাশটি ময়না তদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয় ।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।