ছিনতাইয়ের কবলে শ্রমিকেরা, নগদ টাকা খোয়া

136

জীবননগর অফিস:
জীবননগরে ছিনতাইয়ের কবলে পড়ে ৪৩ হাজার টাকা খোয়ালেন শ্রমিকেরা। গত রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে জীবননগর উপজেলার সীমান্ত ইটভাটার অদূরে এ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, গত রোববার রাত ১০টার দিকে সীমান্ত ইউনিয়নের যাদবপুর গ্রামের ঢালাই শ্রমিকেরা কাজ শেষে বাড়ি ফিরছিলেন। এমন সময় ঢালাই মেশিনের মালিক যাদবপুর গ্রামের স্কুলপাড়ার আজিমউদ্দিনের ছেলে ফরিদুল ইসলামের (৩৫) গাড়ি থামিয়ে তাঁর নিকট থেকে ঢালাই শ্রমিকদের দিনহাজিরার ৪৩ হাজার টাকা ছিনতাইকারীরা ছিনিয়ে নেয়।
শ্রমিক নেতা ফরিদুল ইসলাম বলেন, ‘প্রতিদিনের ন্যায় রোববার রাতে ঢালাইয়ের কাজ শেষে শ্রমিকেরা বাড়িতে চলে যায়। আমি এবং আমার সঙ্গে আরও দুইজন শ্রমিক নিয়ে শ্রমিকদের দিনহাজিরার টাকা তুলে বাড়ি ফিরছিলাম। হঠাৎ সীমান্ত ইটভাটার অদূরে আমবাগানের মধ্যে থেকে ৭-৮ জন ব্যক্তি মুখোশ পরিহিত অবস্থায় হাতে দেশীয় হাসুয়া, রড, লাঠি নিয়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে আমার গাড়ি থামায়। এ সময় আমার কাছে শ্রমিকদের দিন হাজিরার টাকা ও আমার মেশিন ভাড়ার ৪৩ হাজার টাকা ছিল। আমি টাকা দিতে অপারগতা জানালে তারা আমার মাথায় দেশীয় হাসুয়া দিয়ে কোপ মারে। এ সময় আমার মাথায় হেলমেট থাকার ফলে কোপটা হেলমেটে লাগে। যার ফলে আমি প্রাণে বেঁচে যাই। অবশেষে তারা আমার কাছ থেকে ৪৩ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে বাগানের মধ্যে চলে যায়।’
তথ্যনুসন্ধানে জানা গেছে, কয়েকদিন আগে ওই একই স্থানে যাদবপুর গ্রামের কুদ্দুস আলী (৫০) নামের এক ব্যাক্তির নিকট থেকে ছিনতাইকারীরা টাকা ছিনিয়ে নেয়। এক সপ্তাহের ব্যবধানে দুইবার ছিনতাইয়ের ঘটনায় এলাকাবাসীসহ জীবননগর উপজেলার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
এ বিষয়ে জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘বিষয়টি আমি শুনেছি। এখনও পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। তবে বিষয়টি ছিনতাই, না অন্য কিছু, এটি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
এদিকে শ্রমিকদের এক দিনের মাথার ঘাম পায়ে ফেলা দিনহাজিরার টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় শ্রমিকেরা হতাশ হয়ে পড়েছেন। আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে গোটা এলাকায়।