চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ৮ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চেয়ারম্যানের প্রতীক্ষায় আধা বেলা!

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুন ৮, ২০২২ ৯:০৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

প্রতিবেদক, মেহেরপুর: জন্ম নিবন্ধনের জন্য এসেছিলেন জোড়পুকুর বাজারের ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান। ঘড়িতে দুপুর একটার কাঁটা ছুঁই ছুঁই। চেয়ারম্যানের দেখা মিলছে না। দেড়টার দিকে চেয়ারম্যান অফিসে আসলেন। এমন প্রতীক্ষার পর কাজ শেষে তাঁর দেরীতে আসার হেতু জানতে চাইলেও কোনো জবাব মেলেনি। শুধু হাবিবুর নয়, তাঁর মতো সেবা নিতে আসা কাজীপুর ইউনিয়নবাসীকে অপেক্ষা করতে হয় আধা বেলা। আবার কখনো কখনো দিন গড়িয়ে গেলেও দেখা মেলে না চেয়ারম্যানের। ঘটনাটি মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কাজীপুর ইউনিয়নের। এখানে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন আলম হুসাইন।

স্থানীয়রা জানান, চেয়ারম্যান আলম হুসাইন করমদী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। এবারের নির্বাচনে তিনি কাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি প্রথমে বিদ্যালয়ে যান। পরে সেখান থেকে কাজ শেষ করে দুপুরের পর আসেন ইউনিয়ন পরিষদে। এতে পরিষদে সেবা নিতে আসা শত শত মানুষ চেয়ারম্যানের অপেক্ষায় প্রহর গুনতে থাকে। অনেক সময় দীর্ঘ প্রতীক্ষার পরও চেয়ারম্যানের দেখা মেলে না। সেবা না নিয়েই ফিরতে হয় বাড়িতে পরের দিনের অপেক্ষায়। স্থানীয়দের অভিযোগ, চেয়ারম্যানের অবহেলার কারণেই পরিষদে দায়ের করা বিভিন্ন অভিযোগ ৫-৬ মাসেও নিষ্পত্তি হয় না। বিচারের আশায় মাসের পর মাস ঘুরতে হয় ইউনিয়ন পরিষদের বারান্দায়।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান আলম হুসাইন জানান, তিনি সকালে স্কুলে যান। যখন প্রয়োজন হয় তখন পরিষদে যান। সেবা প্রত্যাশীদের অসুবিধার কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রয়োজনে অফিস টাইম বাদে সকাল-বিকেল সময় দেন তিনি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।