চুয়াডাঙ্গা সদর থানার এএসআই জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে দেহ তল্লাশীর নামে পকেটের টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ

356

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের এএসআই জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে দেহ তল্লাশীর নামে পকেটে থাকা অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শহরের ফার্মপাড়ার পারভেজ আলম লাইজুর দেহ তল্লাশীর সময় অসৌজন্যমূলক আচরণ করে পুলিশ। এসময় তার পকেটে থাকা নগদ ৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় এএসআই জাহাঙ্গীর। গতকাল শুক্রবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে চুয়াডাঙ্গা রেলবাজার লেভেল ক্রসিংয়ের পাশে এঘটনা ঘটে। এঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন লাইজু।
অভিযোগসূত্রে জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি আরেফিন আলম রঞ্জুর ভাই ফার্মপাড়ার পারভেজ আলম লাইজু নিজবাড়িতে ফিরছিলেন। এসময় পুলিশের টহল দলের এএসআই জাহাঙ্গীর আলম সঙ্গীয় ফোর্সসহ লাইজুর গতিরোধ করে। তার দেহ তল্লাশীর কথা বলে রেলবাজারের লেভেল ক্রসিংয়ের সিগন্যাল অফিসের পাশে মস্তানের চায়ের দোকানে কাছে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে লাইজুর কাছে অবৈধ কিছু না পেলেও পকেটে থাকা নগদ ৫ হাজার টাকা জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেন এএসআই জাহাঙ্গীর। স্থানীয়রা তা দেখে এগিয়ে এলেও পিস্তল দেখিয়ে তাদেরকে সরিয়ে দেন তিনি। পরে পারভেজ আলম লাইজু তার নিজের পরিচয়, ভাই যুবলীগের সাবেক সভাপতি এবং বড় ভাই ট্রাফিকের পরিদর্শক পরিচয় দিলে এএসআই জাহাঙ্গীর আরও রাগান্বিত হয়ে গালিগালাজ করতে থাকে।
এএসআই জাহাঙ্গীরের এমন আচরণ ও দেহ তল্লাশীর নামে অর্থ ছিনিয়ে নেয়ার বিষয়ে সুষ্ঠু তদন্তের জন্য পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভূক্তভোগি পারভেজ আলম লাইজু।