চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ১ আগস্ট ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গা মোর্তুজাপুরের স্কুলছাত্র অপহরণ মামলায় : নারীসহ চারজনের বিভিন্ন মেয়াদে জেল ও জরিমানা

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ১, ২০১৭ ৬:৩৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গায় সদর উপজেলার মোর্তুজাপুর গ্রামে স্কুলছাত্র সাগর অপহরণ মামলায় এক নারীসহ চারজনকে কারাদ- দিয়েছেন আদালত। সোমবার বিকেলে আসামিদের উপস্থিতিতে চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ মো. রবিউল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন। সন্ধ্যায় দ-িতদের পুলিশি প্রহরায় চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। দ-িতরা হলেন, চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার কেদারনগর গ্রামের মৃত অয়েন আলীর ছেলে ডালিম হোসেন, মৃত শাকের আলীর ছেলে আসাদুল ইসলাম, ডালিম হোসেনের স্ত্রী আয়েশা খাতুন ও চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার মোর্তুজপুর গ্রামের আবদুর রহিমের ছেলে শিমুল হোসেন।
আদালতসূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালে ডিসেম্বর মাসে মুক্তিপণের দাবিতে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার মোর্তুজাপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ভাতিজা সাগরকে সরোজগঞ্জ বাজার থেকে অপহরণ করে দুষ্কৃতকারীরা। পরে এ ঘটনায় পুলিশ চারজন অপহরককে আটক করে। তাদের স্বীকারোক্তিতে অপহৃতকে কেদারনগর গ্রামের ডালিমের বাড়ির পাশ থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় আব্দুর রাজ্জাক বাদী হয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় চার জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। ২০১৫ সালের ৯ মার্চ সদর থানার তৎকালীন এসআই আমির আব্বাস ওই মামলার চার আসামিকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলায় ১১ সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে গতকাল সোমবার বিকেলে আসামীদের উপস্থিতিতে চুয়াডাঙ্গা আদালতে রায় ঘোষিত হয়। আসামিরা দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় শিমুল ও ডালিমকে ১০ বছর এবং আসাদুল ও আয়েশাকে ৭ বছর করে কারাদ- দেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৪ মাস করে কারাদ- আদেশ দেয়া হয়।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।