চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ১৯ আগস্ট ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুরে করোনায় দুজনের মৃত্যু

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ১৯, ২০২১ ৯:১০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৭২ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ৭২৪৮ জন
নিজস্ব প্রতিবেদক:
সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত আরও ১৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এনিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়ে সারা দেশে মোট হয়েছে ২৪ হাজার ৭১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে আরও ৭ হাজার ২৪৮ জন। এদিকে, গতকাল চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়ছে। গতকাল চুয়াডাঙ্গায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে আরও ২০ জনের শরীরে। এদিকে, গতকাল মেহেরপুরে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছে ১২ জন। করোনা উপসর্গ নিয়ে নতুন করে মৃত্যু হয়েছে একজনের।
চুয়াডাঙ্গা:
চুয়াডাঙ্গায় করোনা উপসর্গ নিয়ে নতুন করে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সদর হাসপাতালের এইচডিইউ ইউনিটে দুজন ও ইয়োলো জোনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজনসহ মোট তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল জেলায় নতুন করে ১৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৫১৪ জনে।
জানা যায়, গতকাল জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা পরীক্ষার ১৬৪টি নমুনার ফলাফল প্রকাশ করে। এর মধ্যে ১৯টি নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাকী ১৪৫টি নমুনার ফলাফল নেগেটিভ আসে। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় করোনা শনাক্তের হার ১১.৫৮ শতাংশ। গতকাল নতুন শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে সদর উপজেরার ৭জন, আলমডাঙ্গার ৪ জন, দামুড়হুদার ৬ জন ও জীবননগরের ২ জন রয়েছে। গতকাল জেলায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে আরও ৫২ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট সুস্থ হয়েছে ৫ হাজার ২৫৪ জন।
চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. এ এস এম ফাতেহ্ আকরাম জানান, গতকাল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ইয়োলো জোনে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজন ও এইচডিইউ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় উপসর্গ নিয়ে দুজনের মৃত্য হয়। মৃত্যুর পর নিহতদের শরীরে থেকে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ শেষে করোনা প্রটোকলে লাশ পরিবারের সদস্যদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে মৃত্যু হয়েছে মোট ১৮১ জনের ও জেলার বাইরে মৃত্যু হয়েছে আরও ২০ জনের। তিনি আরও জানান, এখন পর্যন্ত চুয়াডাঙ্গায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের ৮৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ৭১ জন সুস্থ হয়েছেন বাকী ১৬ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিসের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী জেলা থেকে এ পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ ২৫ হাজার ২০৩টি, প্রাপ্ত ফলাফল ২৫ হাজার ১০১টি, পজিটিভ ৬ হাজার ৫১৪ জন। জেলায় বর্তমানে ১ হাজার ৫৯ জন হোম আইসোলেশন ও হাসপাতাল আইসোলেশনে রয়েছে। এর মধ্যে হোম আইসোলেশনে আছে ১ হাজার ৩ জন ও হাসপাতাল আইসোলেশনে ৫৬ জন। জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ২০১ জনের। এর মধ্যে জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলার হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে মৃত্যু হয়েছে ১৮১ জনের। এছাড়া চুয়াডাঙ্গায় আক্রান্ত অন্য ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে জেলার বাইরে।
মেহেরপুর:
মেহেরপুরে নতুন করে আরও ১২ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। একই সময়ে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল জেলায় নতুন আক্রান্ত ১২ জনের মধ্যে সদর উপজেলার ৫ জন, গাংনীতে ৫ জন ও মুজিবনগরে ২ জন রয়েছে। গতকাল বুধবার রাতে মেহেরপুর সিভিল সার্জন ডা. নাসির উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেন। সূত্রে আরও জানা যায়, গতকাল মেহেরপুর স্বাস্থ্য বিভাগ ল্যাবে পরীক্ষিত আরও ১১৫টি নমুনার ফলাফল প্রকাশ করে। এর মধ্যে ১২টি নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১০.১৩ শতাংশ। নতুন আাক্রান্ত ১২ জনসহ বর্তমানে মেহেরপুর জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে ২৭১ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৩২ জন, গাংনী উপজেলায় ১৭১ জন এবং মুজিবনগর উপজেলায় ৬৮ জন। এ পর্যন্ত মেহেরপুরে মোট মৃত্যু হয়েছে ১৭৩ জনের। মৃতদের মধ্যে সদর উপজেলার ৮০ জন, গাংনী উপজেলার ৫৪ জন ও মুজিবনগর উপজেলার ৩৯ জন রয়েছে।
সারাদেশ:
সারা দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ২৪৮ জন। গতকাল বুধবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। আগের দিনের চেয়ে করোনায় মৃত্যু ও নতুন রোগী শনাক্তের হার কমেছে। আগের দিন ১৯৮ জনের মৃত্যু এবং ৭ হাজার ৫৩৫ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছিলেন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন ল্যাবে মোট ৪১ হাজার ১৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছে ১৭.৬৭ শতাংশ। আগের দিন শনাক্তের হার ছিল ১৯ দশমিক ১৮। এ নিয়ে দুদিন ধরে শনাক্ত ২০ শতাংশের নিচে থাকল।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সব মিলিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৪ লাখ ৪০ হাজার ৬৪৪। মোট মৃত্যু হয়েছে ২৪ হাজার ৭১৯ জনের। আর করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৩ লাখ ২৭ হাজার ২৮ জন। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১২ হাজার ১১২ জন।
গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি ৬৭ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। এরপর চট্টগ্রাম বিভাগে ৪৭ জন এবং খুলনা বিভাগে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাকিরা অন্যান্য বিভাগের।
২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দেখা দেয়। কয়েক মাসের মধ্যে এ ভাইরাস বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। বাংলাদেশে প্রথম করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। এরপর বিভিন্ন সময়ে সংক্রমণ কমবেশি হলেও দুই মাসের বেশি সময় ধরে দেশে করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক অবস্থায় পৌঁছেছে। করোনার ডেলটা ধরনের দাপটে দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যু কয়েক গুণ বেড়েছে। গত জুলাই মাসে দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ১৮২ জনের। প্রায় দেড় বছর ধরে চলা এ মহামারিতে এর আগে কোনো মাসে এত মৃত্যু দেখেনি বাংলাদেশ। এর আগে বেশি মৃত্যু হয়েছিল গত এপ্রিলে ২ হাজার ৪০৪ জনের। বর্তমানে সারা বিশ্বেই করোনার ডেলটা ধরনের দাপট চলছে। এরই মধ্যে বিশ্বের অক্রান্ত ১৪২টি দেশ ও অঞ্চলে করোনার অতিসংক্রামক এ ধরন ছড়িয়েছে। ফলে বিশ্বজুড়েই করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।