চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১১ এপ্রিল ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

‘চুয়াডাঙ্গা বাংলাদেশের প্রথম রাজধানী’ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবিতে মানববন্ধন

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
এপ্রিল ১১, ২০২২ ৯:২৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক:
১০ এপ্রিল ১৯৭১ সালে ঘোষিত ‘চুয়াডাঙ্গা বাংলাদেশের প্রথম রাজধানী’ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবিতে মানববন্ধন করেছে চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন। গতকাল রোববার বেলা ১১টায় স্থানীয় শহিদ হাসান চত্বরে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ প্রগতি লেখক সংঘ চুয়াডাঙ্গা জেলা ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক কাজল মাহমুদ, সুন্দরম মিডিয়ার পরিচালক আসাদুজ্জামান শিমুল, এম এ মতিন, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি শাওন কুমার রায়, বাংলাদেশ উদীচী শিল্পিগোষ্ঠী চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সম্পাদক ম-লীর সদস্য শেখ ফরিদ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ‘দক্ষিণ পশ্চিম রণাঙ্গনের সদর দপ্তর ও বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধের এই সূতিকাগার চুয়াডাঙ্গাকে অস্থায়ী রাজধানী করে এলাকার বিভিন্ন জেলায় তৎকালীন আনসার মুজাহিদ, ইপিআর ও পুলিশ নিয়ে যৌথবাহিনী গঠন করে মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনা করা হতো। বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধের এই অস্থায়ী রাজধানীতে প্রথম যুদ্ধে যাবার শপথ গ্রহণ করেন ৪৭ জন আনসার ও মুজাহিদ। এদের অনেকেই এখনো জীবিত আছেন, যারা একক এবং যৌথভাবে মুক্তিযুদ্ধে সম্মুখসমরে অংশগ্রহণ করেছিলেন। এ কারণে মুক্তিযুদ্ধকালীন সরকারের প্রথম সরকার গঠন, শপথ গ্রহণ এবং প্রথম রাজধানী হিসেবে চুয়াডাঙ্গাকে বেঁছে নেওয়া হয়। পাক-বাহিনী বিষয়টি টের পেয়ে হামলা চালালে সকল প্রস্তুতি ভেস্তে যায়। বাংলাদেশ সরকারের রাষ্ট্রীয় মনোগ্রাম ও সিলমোহর তৈরি করা হয়েছে এই চুয়াডাঙ্গা থেকেই। তবে কেন আজ আমাদের চুয়াডাঙ্গাকে প্রথম রাজধানীর রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দেওয়া হবে না।’

মানববন্ধন কর্মসূচিতে জেলা ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সদস্য ও জেলার বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করেন। উল্লেখ্য, মুক্তিযুদ্ধে নানা ইতিহাসের সাক্ষী চুয়াডাঙ্গার সর্বস্তরের জনগণ এ জেলাকে অস্থায়ী রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করতে প্রতি বছরের ১০ এপ্রিল তাদের অধিকার আদায়ে মানববন্ধনসহ নানা কর্মসূচি পালন করে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।