চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৮ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা মিলনায়তনে ভিক্ষুক সমাবেশে জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস আগামী ডিসেম্বরেই চুয়াডাঙ্গা জেলাকে ভিক্ষুক মুক্ত করা হবে

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ৮, ২০১৬ ২:০৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভিক্ষাবৃত্তি থেকে সরিয়ে এনে ভিক্ষুকদের মানব সম্পদে পরিণত করার ঘোষণা দিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস। গতকাল সকাল ১০টায় চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা মিলনায়নে পৌরসভার মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধূরী জিপুর সভাপতিত্বে এক ভিক্ষুক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আনজুমান আরা। মেয়র সভাপতির বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের প্রত্যোকটি শহরে ভিক্ষুক আছে। ১৬ কোটি বাঙালির দেশে ভিক্ষুক ছাড়া শহর ভাবাই অসম্ভব! তবে এই অসম্ভবকে সম্ভব করতে মাঠে নেমেছেন চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা। পৌরবাসী আমাকে সহযোগিতা করলে এই অসম্ভবকে সম্ভব করা যাবে। সমাবেশটি সার্বিক পরিচালনা করেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র একরামুল হক মুক্তা। এছাড়া পৌর এলাকার কয়েকশ ভিক্ষুক সমাবেশে উপস্থিত ছিল। কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, সিরাজুল ইসলাম মনি ও আবুল হোসেনসহ চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সকল কাউন্সিলরবৃন্দসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলো। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে চুয়াডাঙ্গা জেলাকে ভিক্ষুক মুক্ত করা হবে। সেই লক্ষ্যে ভিক্ষুকদের পুনর্বাসন করে স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ইতোমধ্যে জেলাব্যাপী ভিক্ষুকদের তালিকা সংগ্রহের কাজ শেষ হয়েছে। চূড়ান্ত তালিকা শেষে সব ভিক্ষুককে পুনর্বাসন করা হবে। ভিক্ষক সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আনজুমান আরা, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একেএম মামুনউজ্জামান ও পৌর কাউন্সিলর একরামুল হক মুক্ত।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।