চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ২৮ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসাবে মাহফুজুর রহমান মনজু দলীয় ভাবে মনোনয়ন পাওয়ায় জীবননগর থানা আওয়ামী লীগের একাংশের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও পথসভা

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ২৮, ২০১৬ ৬:৩৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

DSC01161

জীবননগর অফিস: আসন্ন চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ নির্বাচনে দামুড়হুদা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের প্রশাসক বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহফুজুর রহমান মনজুকে পুনরায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা দেওয়ায় জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ যুবলীগের একাংশের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলাইমান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপিকে সাধুবাদ জানান একই সাথে জীবননগর উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে মাহফুজুর রহমান মনজুকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। গতকাল রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা থেকে নিজ বাড়ি দর্শনায় পৌছাঁনোর পথিমধ্যে হাসাদহ তেল পাম্পের সামনে জীবননগর থানা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগ, দামুড়হুদা থানা আওয়ামী লীগ, দর্শনা পৌর আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা গাড়ি বহর করে ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান করে মাহফুজুর রহমান মনজুকে বরণ করে নেন এবং জীবননগর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মোর্তুজার সভাপতিত্বে বাসস্ট্যান্ড চত্ত্বরে এক পথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত পথ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের মনোনীত চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের প্রশাসক পদপ্রার্থী ও বর্তমান জেলা পরিষদের প্রশাসক মাহফুজুর রহমান মনজু। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন জীবননগর থানা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মুন্সী নজরুল ইসলাম, জীবননগর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকি, বিশিষ্ঠ শিল্পপতি চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সম্ভাব্য সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী নজরুল মল্লিক, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মুন্সী নাসির উদ্দিন প্রমূখ। এ পথ সভায় প্রধান অতিথি বক্তব্যে বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সফল প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে যেভাবে একটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব হিসাবে চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসাবে নিয়োগ দিয়েছিলেন আমি আমার সাদ্ধ্যমত চেষ্ঠা করেছি তিনার দেওয়া সেই মহত দায়িত্ব পালন করার জন্য। আমি যতটুকু পেরেছি সাধারন মানুষের পাশে থাকার চেষ্ঠা করেছি বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর দেওয়া দেশের সাধারন মানুষের প্রতিশ্রুতি বাংলাদেশকে একটি মধ্যে আয়ের দেশ হিসাবে গড়ে তোলা। সে কারনে আমি দুই বছর যাবৎ জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছি। আমি যতটুকু পেরেছি স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মাদ্রসা, মন্দির, রাস্তাঘাট ইত্যাদি উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের নির্বাচনে দলীয় মনোনয় পত্র দেওয়ায় আমি তিনাকে আন্তরিকভাবে অভিনন্দন জানায় এবং তিনি আমাকে যে মহত উদ্দেশ্যে নিয়ে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন আমি নির্বাচিত হয়ে তিনার দেওয়া সেই নির্দেশনা আমি অক্ষরে অক্ষরে পালন করব। অনুষ্ঠানে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জীবননগর থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ.কাদের প্রধান, দামুড়হুদা থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও নতিপোতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিজুল হোসেন, দামুড়হুদা সদর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আমজাদ হোসেন, হাসাদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগনেতা হাবিবুর রহমান হবি বিশ্বাস, শিক্ষক আ.সামাদ, আওয়ামী লীগনেতা সাইদুর রহমান, জাহাঙ্গীর আলম, নাহির, জাকির হোসেন, মির্জা লিটন, রায়পুর ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আ. মালেক, শাহাবউদ্দিন, যুবলীগ নেতা নান্নু, আকিমুল, আকতার, রাজিব মল্লিক, চুন্নু, মোস্তাফিজুর রহমান লাল্টু, কামরুজ্জামান বিদ্যুৎ ছাত্রলীগনেতা আল মামুন রনি, সুজন মির, সজিব প্রমূখ।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।