চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ২৩ নভেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান-সদস্যদের কার্যভার গ্রহণ ও পরিষদের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত

দৃশ্যমান কাজ মানুষের চোখে পড়বে বললেন এমপি টগর
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
নভেম্বর ২৩, ২০২২ ৪:০১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

নিজ নিজ জায়গা থেকে প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় অংশগ্রহণ করব : চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান মনজু

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও সদস্যদের কার্যভার গ্রহণ এবং পরিষদের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা একটায় চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রথমে চেয়ারমান ও সদস্যদের কার্যভার গ্রহণ অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজর টগর। জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান মনজুর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আয়ুব হোসেন, জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, আলমডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র হাসান কাদির গণু, জীবননগর পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম, আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রনি আলম নূর, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাজহারুল ইসলাম, জীবননগর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) তিথি মিত্র প্রমুখ।

Girl in a jacket

অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, দায়িত্বভার গ্রহণ অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুন্সি আবু সাঈফ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগর টগর এমপি বলেন, ‘আমরা চাই জেলা পরিষদ ভালোভাবে দায়িত্ব পালন করুক। নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানের অভিজ্ঞতা আছে। আপনি পারবেন। আমরা আপনাদের সহযোগিতা করব। স্বচ্ছতার সাথে কাজ করবেন। দৃশ্যমান কাজ করবেন। দৃশ্যমান কাজ মানুষের চোখে পড়বে। জেলা পরিষদের অনেক কাজ। কাজগুলো ভালোভাবে করতে হবে।’

সভাপতির বক্তব্যে নবনির্বাচিত জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান মনজু বলেন, ‘আমাকে যাঁরা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন, সম্মানিত ভোটারদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞা জানাচ্ছি। ২০১৪ সালে আমি জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলাম। আমি একটা বিষয়ে নিশ্চিত, আমরা যদি সকলের সহযোগিতা পাই, বিশেষ করে সকল নির্বাচিত সদস্য ও আমাদের উপদেষ্টা মহোদয় দুটি আসনের সম্মানিত দুইজন সংসদ সদস্যের সহযোগিতা পাই, আমরা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ১৪ বছর ক্ষমতায় আছেন, তিনি অভূতপূর্ব উন্নয়ন করেছেন। তাঁর নেতৃত্বে দেশ এগিয়েছে। সরকার দক্ষতার সাথে সকল প্রতিবন্ধকতা, সমস্যা মোকাবিলা করছে। আমরা নিজ নিজ জায়গা থেকে প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় অংশগ্রহণ করব।’ পরে চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৭ অক্টোবর জেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে মোবাইল প্রতীকে ৩১২ ভোট পেয়ে মাহফুজুর রহমান মনজু নির্বাচিত হন। চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদে ১ নম্বর ওয়ার্ডের জহুরুল ইসলাম, ২ নম্বর ওয়ার্ডে মজনু রহমান, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে অ্যাড. সিরাজুল ইসলাম, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে মোসাবুল ইসলাম লিটন, সংরক্ষিত ১ নম্বর ওয়ার্ডে (চুয়াডাঙ্গা ও আলমডাঙ্গা) বিথী খাতুন, ২ নম্বর ওয়ার্ডে (দামুড়হুদা ও জীবননগর) কহিনুর বেগম দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।