চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরে বেগম জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে সেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ

405

যত বাধা আসুক সেচ্ছাসেবক দল গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে মাঠে থাকবে
নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুর জেলা সেচ্ছাসেবক দলের আয়োজনে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় ঘোষিত কমসুচির অংশ হিসাবে জেলা সেচ্ছাসেবক দলের আয়োজনে চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদ চত্বরে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে উক্ত বিক্ষোভ মিছিলটি বের হলে পুলিশি বাধার মুখে পড়ে পুলিশের সাথে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে মিছিলটি সাহিত্য পরিষদ চত্বরে ফিরে সমাবেশ করে। উক্ত সমাবেশে জেলা সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিকুল ইসলাম পিটুর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন জেলা সেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক এম এ তালহা, যুগ্ম সম্পাদক হামিদ উদ্দিন বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম হাসান টুটুলসহ চুয়াডাঙ্গা, আলমডাঙ্গা, দামুড়হুদা, দর্শনা ও জীবননগর উপজেলার সেচ্ছাসেবক দলের নেতৃবৃন্দ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকার আমাদের গণতন্ত্র অধিকার পালন করতে দেয় না। এরপর পর যত বাধা আসুক সেচ্ছাসেবক দল বিগত দিনের মত আন্দোলনে মাঠে থাকবে। তিনি আরও বলেন, শুধু বেগম খালেদা জিয়া নয় সারাদেশে যত রাজবন্দী আছে তাদের মুক্ত করে গণতন্ত্র পুনউদ্ধারে ভূমিকা রাখবে সেচ্ছাসেবক দল।


মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, মেহেরপুরে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সু-চিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল মেহেরপুর জেলা কমিটি। গতকাল রবিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কেন্দ্রীয় ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসাবে বৃষ্টি বিঘিœত আবহাওয়ার কারনে জেলা বিএনপি’র কার্যালয়ে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মেহেরপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি তোফায়েল আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা বিএনপি’র অন্যতম নেতা সাবেক ভিপি ও পৌর বিএনপির সভাপতি জাহাঙ্গীর বিশ্বাস। ইলিয়াস হোসেন মাস্টারের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি আজিমদ্দিন গাজী, সাধারণ সম্পাদক আজমল হোসেন মিন্টু, যুগ্ম সম্পাদক শফিকুর রহমান ইকবাল, সায়েম আহমেদ প্রমূখ। বক্তারা বলেন, কেন্দ্রীয় ঘোষিত আংশিক কমিটি দ্রুত পুর্নগঠনের মধ্য দিয়ে বেগম জিয়ার মুক্তি আন্দোলনকে বেগবান করতে হবে।