চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ২৪ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরে নানা আয়োজনে আ.লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই আ.লীগ জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ করে
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুন ২৪, ২০২২ ৬:৪০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, তার দল প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ করে যাওয়ায় দেশের মানুষের কাছে নৌকা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। তিনি বলেন, ‘তারা (দেশবাসী) জানে নৌকা আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রতীক এবং নৌকা ছাড়া তাদের গতি নাই। কেননা, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে নিজের ভাগ্য গড়ার জন্য নয়, বরং অনেক মানুষের ভাগ্য গড়তে এবং জন্মলগ্ন থেকে সেই আদর্শ নিয়েই রাজনীতি করে যাচ্ছে।’

তিনি সকলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন বিষয়ে বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে আরও বলেন, ‘নেতৃত্ব শূন্য কোন দল নির্বাচন করবে আর জনগণ ভোট দেবে কি দেখে। ঐ চোর, ঠকবাজ, এতিমের অর্থ আত্মস্যাৎকারী অথবা খুন, অস্ত্র চোরাকারবারী, সাজাপ্রাপ্ত আসামী তাদেরকে জনগণ ভোট দেবে দেশ পরিচালনার জন্য? তারাতো তা দেবে না। বাংলাদেশের মানুষ এ ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতন।’

প্রধানমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা গতকাল সকালে দলের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির ভাষণে এ কথা বলেন। তিনি গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের সাহায্যে দলীয় কার্যালয় ২৩, বঙ্গবন্ধু এভেনিউ এর মূল অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন।

এদিকে, সারা দেশের ন্যায় চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরে নানা আয়োজনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার পৃথক আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেন দলটির নেতা-কর্মীরা।

চুয়াডাঙ্গা:

চুয়াডাঙ্গায় নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ছয়টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ। এসময় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ এবং দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সাবেক মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন। এসময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খুস্তার জামিল, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শামসুজ্জোহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, দপ্তর সম্পাদক অ্যাড. আবু তালেব বিশ্বাস, কোষাধ্যক্ষ আলী রেজা সজল, ক্রীড়া সম্পাদক আরশাদ উদ্দিন আহমেদ চন্দন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. তালিম হোসেন, উপ-প্রচার সম্পাদক শওকত আলী বিশ্বাস, কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাড. বেলাল হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এবিএম জহুরুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার, সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মো. আলাউদ্দিন হেলা, পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, বন ও পরিবেশ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মাস্তার, পৌর ১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মতিন, সাধারণ সম্পাদক গোলজার হোসেন পিণ্টু, ২ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আতিয়ার রহমান, সাধারণ সম্পাদক মো. আবুল কালাম, ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আব্দুর জব্বার বাবু, সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দীন, ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল হাসান বিট্টু, সাধারণ সম্পাদক মো. বেলাল উদ্দীন, ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির আহাদ জোয়ার্দ্দার, জিনারুল ইসলাম মালিক, ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাজামাল মুন্সি, সাধারণ সম্পাদক ইনতাজ আলী, ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মজনুল হক পঁচা, সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক, ৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুজ্জামান তালু, সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক ইন্তা, ৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শাহিবুল আলম লালু, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা নুরুন্নাহার কাকলী, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহাজাদী মিলি, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গরীব রুহানী মাসুম, জাতীয় মহিলা সংস্থার সভাপতি রুকসানা নাবিলা ছন্দা, মহিলা নেত্রী রিনা খাতুন, শেফালি খাতুন, সাথী, কাজল রেখা, যুব মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা গিণি ইসলাম, জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি আফজালুল হক বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক রিপন মণ্ডল, জেলা কৃষক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তহিদুর রহমান চন্দন, কৃষক লীগ নেতা মাসুদুর রশীদ, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সভাপতি সাবেক অধ্যক্ষ শাজাহান আলী, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মাহাবুবুল হক সেলিম, জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক আরেফিন আলম রঞ্জু, যুবলীগ নেতা আব্দুল কাদের, সিরাজুল ইসলাম আসমান, শাকিল এজাজ টিপু টাইগার, হাফিজুর রহমান লাল্টু, গালিব, শেখ সেলিম, শেখ সোহেল, আব্দুস সালাম, জেলা ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক, রেজাউল করিম, সাবেক সহসভাপতি সাহাবুল হোসেন, সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তানিম হাসান তারেক, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ফিরোজ জোয়ার্দ্দার, বাপ্পী আহমেদ, মণ্টা, ছাত্রলীগ নেতা হিমেল, রাজু আহমেদ, সোয়েব রিগান, সোহেল, রকি, রানা, টোকন জোয়ার্দ্দার, মিঠুন, রিওন, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি চুয়াডাঙ্গা ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শাহান, আলুকদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আসাদুল হক ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হাবলুর রহমান।

এরপর বেলা সাড়ে তিনটায় চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে থেকে বিশাল এক র‌্যালি রের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ঘুরে জেলা আওয়ামী লীগের অফিস এসে র‌্যালিটি শেষ হয়। র‌্যালিটির নেতৃত্ব দেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন।

এসময় চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন বলেন, প্রতিবছরের মতো এবারও চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগ বিস্তারিত কর্মসূচির মধ্যদিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন করছে। জনগণই আওয়ামী লীগের মূল শক্তি। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ ভূখণ্ডে প্রতিটি প্রাপ্তি ও অর্জন সবই আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই হয়েছে। এসময় তিনি বলেন, মাতৃভাষা বাংলার মর্যাদা রক্ষা থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত বাঙালির অর্জন এবং বাংলাদেশের সব উন্নয়নের মূলেই রয়েছে আওয়ামী লীগ। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে দলের নেতা-কর্মীদের মেধা, পরিশ্রম, ত্যাগ ও দক্ষতায় আওয়ামী লীগ আরও গতিশীল হবে এবং বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। বাঙালি জাতির প্রতিটি মহৎ, শুভ ও কল্যাণকর অর্জনে আওয়ামী লীগের ভূমিকা রয়েছে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অনিক জোয়ার্দ্দার, চুয়াডাঙ্গা জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন মোল্লা, চুয়াডাঙ্গা রেড ক্রিসেন্টে সোসাইটির ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা জেলা মহিলা লীগের নেতৃবৃন্দ, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন ইউনিট থেকে আগত আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

অপর দিকে, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে জমকালোভাবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার এ উপলক্ষে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সকাল সাড়ে ছয়টায় চুয়াডাঙ্গা কেদারগঞ্জে জাতীয় ও দলীয় পাতাকা উত্তোলন করা হয়। এসময় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন দলীয় নেতা-কর্মীরা।

পরে বিকেল পাঁচটায় চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আসাদুল হক বিশ্বাসের নেতৃত্বে জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ, জেলা কৃষক লীগ, জেলা ছাত্রলীগসহ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের অংশগ্রহণে চুয়াডাঙ্গা কলেজ রোড থেকে একযোগে একটি বৃহত্তর বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি কলেজ রোড, কোর্ট রোড, পুরাতন হাসপাতাল রোড, আবুল কাশেম সড়কসহ শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ করে শহীদ হাসান চত্বরে এসে শেষ হয়। পরে শহীদ হাসান চত্বরে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজাদুল ইসলাম আজাদ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, গৌরব ও ঐতিহ্যের উত্তরসূরী বিশ্বের অন্যতম প্রাজ্ঞ রাজনীতিক ও সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা নানা চড়াই-উৎড়াই পার হয়ে স্রোতের উজানে নৌকা ভাসিয়েছেন। এই এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়দীপ্ত সংগ্রামে একের সঙ্গে বেঁধেছেন বহুকে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যোগ্য উত্তরসূরী শেখ হাসিনা আজ বাঙালি জাতির জন্য এক প্রত্যয়ের নাম; জাতির সততার শক্তি। তার নেতৃত্বেই বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা তথা আজকের ডিজিটাল বাংলাদেশ।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ মানেই সংগ্রামী মানুষের প্রতিচ্ছবি। উপ-মহাদেশের রাজনীতিতে গত সাত দশকেরও বেশি সময় ধরে নিজেদের অপরিহার্যতা প্রমাণ করেছে দলটি। এ দেশের প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামে আওয়ামী লীগের ভূমিকা প্রত্যুজ্জ্বল। বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন, বাষট্টির ছাত্র আন্দোলন, ছেষট্টির ছয় দফা আন্দোলন, ঊনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থান, সত্তরের যুগান্তকারী নির্বাচন, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ এবং স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে জয়ী হওয়ার গৌরব রয়েছে আওয়ামী লীগের। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ও এ দেশের সাধারণ জনগণ মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশের চূড়ান্ত বিজয় অর্জন করেছে। আওয়ামী লীগের ইতিহাস অবিরাম পরিবর্তন ও বিপ্লবের ইতিহাস। আওয়ামী লীগের ইতিহাস ও বাংলাদেশের ইতিহাস অভিন্ন।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস বলেন, আওয়ামী লীগের ইতিহাস মানেই বাঙালির মুক্তির ইতিহাস, আওয়ামী লীগের ইতিহাস মানেই বিশ্বের বুকে বাংলাদেশের মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর ইতিহাস। সংগ্রাম ও অর্জনে আওয়ামী লীগের এই ৭৩ বছর কেটেছে বাংলার মানুষের সাথে মানুষের পাশে থেকে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠাসহ বাঙালি জাতির যা কিছু শ্রেষ্ঠ অর্জন, তার মূলে রয়েছে জনগণের এই প্রতিষ্ঠানের নেতৃত্ব। জন্মলগ্ন থেকে এখন পর্যন্ত আওয়ামী লীগের শক্তির উৎস জনগণ এবং সংগঠনের তৃণমূল পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা।

আলোচনা সভায় জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণবিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ডা. মাহবুব হোসেন মেহেদী বলেন, আওয়ামী ও বাংলাদেশের জন্মের ইতিহাস, বেড়ে ওঠার ইতিহাস এবং বিকশিত হওয়ার ইতিহাস একই। তাই আওয়ামী লীগ ও বাংলাদেশ একে অপরের পরিপূরক। এর অজস্র কারণের মধ্যে অন্যতম কারণটি হলো- অন্য দলগুলোর অধিকাংশই প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পর বাংলার মানুষেকে শাসন করার উদ্দেশ্য নিয়ে, পক্ষান্তরে আওয়ামী লীগের জন্মই হয়েছিল বাঙালি জাতিকে হাজার বছরের শৃঙ্খল থেকে মুক্ত করার লক্ষ্য নিয়ে এবং জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ তা করেছে।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক ও চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সাবেক মেয়র ওবাইদুর রহমান চৌধুরী জিপু। তিনি বলেন, ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন প্রতিষ্ঠার পর থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বাঙালির অধিকার আদায়ের প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছে। মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই ঘটে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা বাঙালি জাতির সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ অর্জন। বাঙালির স্বপ্নপূরণের সারথী হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সর্বদাই থেকেছে বাঙালি জাতির পাশে।

জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. শফিকুল ইসলাম শফির পরিচালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আব্দুল মালেক, জেলা কৃষক লীগের সভাপতি ও মোমিনপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক জোয়ার্দ্দার ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য ও কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেন টাইগার, পদ্মাবিলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবু তাহের বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মতিয়ার রহমান মতি, চুয়াডাঙ্গা জেলা কৃষক লীগের সহসভাপতি আক্তারুজ্জামান, আইনবিষয়ক সম্পাদক আব্দুল খালেক, দপ্তর সম্পাদক রাকিব আহম্মেদ জনি, সদর থানা কৃষক লীগের আহ্বায়ক আব্দুল মতিন দুদু, চুয়াডাঙ্গা  সদর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাফিজুর রহমান মাফিসহ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

গড়াইটুপি:

জমকালো আয়োজনে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপিতে আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে নবগঠিত গড়াইটুপি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে খাড়াগোদা বাজার জাহিদ মার্টেকের সামনে নেতা-কর্মীদের নিয়ে প্রথমে কেক কাটা ও পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সকল কর্মীদের দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। গড়াইটুপি ইউনিয়ন ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি কাদের মণ্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নবগঠিত গড়াইটুপি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নবগঠিত গড়াইটুপি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ, সহসভাপতি জয়নাল আবেদীন, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক শরিফুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তফা কামাল ও যুগ্ম সাধারণ আমজেদ আলী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন গড়াইটুপি ইউনিয়ন ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন আলী, ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রতন মিয়া, ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আশাদুল হক, ৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবলু, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, ৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান, সাধারণ সম্পাদক আওয়াল হোসেন, আনোয়ার হোসেন (আনারকলি), রতন হোসেন, আসাদ মিয়া প্রমুখ।

আলমডাঙ্গা:

আলমডাঙ্গা উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন শেষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এরপর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পৌরসভাসহ উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নে নেতা-কর্মীরা একত্রিত হয়ে সরকারি কলেজ চত্বর থেকে এক বিশাল বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করে। র‌্যালিটি শহর প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এসে সমবেত হয়। পরে সেখানে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাস্টার।

পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান ফারুকের উপস্থাপনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম খান, যুগ্ম সম্পাদক সাইদুর রহমান পিণ্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি আলহাজ্ব লিয়াকত আলী লিপু মোল্লা, খন্দকার শাহ আলম মণ্টু, খন্দকার হামিদুল ইসলাম আজম, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আলম হোসেন, আতিয়ার রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার সালমান আহমেদ ডন, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি নয়ন সরকার ও কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আশরাফুল হক।

বক্তব্য দেন বীর মুক্তিযোদ্ধা দিদার আলী, কামরুজ্জামান শামীম, আব্দুর রাজ্জাক, হাসানুজ্জামান হান্নান, মকবুল হোসেন, আবু তাহের আবু, নুরুল ইসলাম, বিল্লাল গনি, রাহাবুদ্দিন, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহিদা ইসলাম, পৌর প্যানেল মেয়র মুজিবুল হক, রেজাউল হক তবা, মোজাম্মেল হক, সজিবুর রহমান, সোনা উল্লাহ, জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ। পরে সন্ধ্যায় দলীয় কার্যালয়ে কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উৎসব উদ্যাপন করা হয়।

জীবননগর:

জীবননগরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে গতকাল সকাল ৮টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুন্সী নাসির উদ্দীন, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকী, মহিলা আওয়ামী লীগের সম্পদিকা রিজিয়া আক্তার, মহিলা নেত্রী রেনুকা আক্তার ও মনোহরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবীব বকুল।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা সেকেন্দার আলী, আনোয়ার হোসেন, জীবননগর পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, আপিল মাহমুদ, সিরাজুল ইসলামসহ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। পরে বিকেল চারটায় জীবননগর বাসস্ট্যান্ড উন্মুক্ত মঞ্চে আনন্দ র‌্যালি, দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জীবননগর বাসস্ট্যান্ড মসজিদের পেশ ইমাম ওয়ালিউর রহমান। আলোচনা সভায় বক্তারা বর্তমান সরকারের উন্নয়নমূলক দিক নিয়ে আলোচনা করেন।

আন্দুলবাড়ীয়া:

জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়ীয়ায় আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন ও পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।   আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটায় ইউনিয়ন পরিষদের হলরুমে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মহিদুল ইসলাম মধু জিহাদী। বক্তব্য দেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস এম আশরাফুজ্জামান টিপু, শেখ আতিয়ার রহমান, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুর রহমান হাফিজ, সহ-দপ্তর সম্পাদক রেজাউল হক রেজা, আওয়ামী লীগ নেতা হাজী শেখ আসাউল ইসলাম গোলাপ, আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শেখ আরোজ আহাম্মেদ বিল্লাল ও আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম নাসিম উদ্দীন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি শেখ মইদুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ মোল্লা ফখরুল হাসান টুটুল, দপ্তর সম্পাদক শেখ রেজা বিডিআরসহ ৯টি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক এবং অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন ইউনিটের দলীয় নেতা-কর্মীরা। আলোচনা সভা শেষে চুয়াডাঙ্গার দুই সাংসদের দ্রুত সুস্থতা কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া পরিচালনা করেন আন্দুলবাড়ীয়া মীরপাড়া-আদর্শপাড়া-হারদা পাড়া বায়তুল সালাম জামে মসজিদের ইমাম হযরত মাওলানা নুরুজ্জামান।

মেহেরপুর:

নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে মেহেরপুরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেনের বাসভবনের সামনে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন নেতৃবৃন্দ। মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক, সহসভাপতি অ্যাডভোকেট মিয়াজান আলী, আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস, আবদুল মান্নান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম শাহীন উপস্থিত থেকে পতাকা উত্তোলন এবং পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। পরে সেখানে মেহেরপুর পৌর আওয়ামী লীগ, জেলা যুব মহিলা লীগ ও ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে পৃথকভাবে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

এসময় অন্যদের মধ্যে মেহেরপুর পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) পল্লব ভট্টাচার্য, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট খন্দকার আবদুল মতিন, মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শামীম আরা হীরা, সদর উপজেলা আওয়াামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বারাদী ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোমিনুল ইসলাম, মেহেরপুর জেলা বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সভাপতি প্রফেসর হাসানুজ্জামান মালেক, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ইকবাল হোসেন বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খ ম হারুন ইমতিয়াজ বিন জুয়েল, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি সাজ্জাদুল আনাম, যুগ্ম আহ্বায়ক সরফরাজ হোসেন মৃদুল, নবগঠিত শ্যামপুর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মতিউর রহমান মতি, নবনির্বাচিত পৌর কাউন্সিলর রোকসানা কামাল, জেলা যুব মহিলা লীগের সভানেত্রী সামিউন বাসিরা পলি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মুজিবনগর:

মেহেরপুরের মুজিবনগরে নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার এ উপলক্ষে মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। দিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে সকাল ৯টায় মুজিবনগর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম তোতা ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদসহ নেতৃবৃন্দ। পরে সকাল সাড়ে ৯টায় মুজিবনগর শেখ হাসিনা চত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পতাকা উত্তোলন শেষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম তোতার সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, মোনাখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম রফা, বাগোয়ান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান মধু, দারিয়াপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তাকিম হক খোকন কমান্ডার, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামরুল হাসান চাঁদু, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি মতিউর রহমান মতিন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ সাকিব, উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি তকলিমা খাতুন, সাধারণ সম্পাদিকা তহমিনা খাতুনসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

গাংনী:

মেহেরপুরের গাংনীতেও উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে গাংনী বাসস্ট্যান্ডের রেজাউল চত্বরে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের  প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরে গাংনী উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আওয়াম লীগের সাধারণ সম্পাদক মোখলেছুর রহমান মুকুলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের সংসদ সদস্য সাহিদুজ্জামান খোকন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিরুল ইসলাম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক আবুল বাশার, সাবেক ছাত্রনেতা আনিসুজ্জামান লুইস, আওয়ামী লীগ নেতা মনিরুজ্জামান আতু, সাহারবাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ মোর্শেদ অতুল, সাবেক ছাত্রনেতা জাকিয়া সুলতানা আল্পনা, কাথুলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলজার হোসেন, রাইপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুজ্জামান মঙ্গল প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শেষাংশে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন এমপি সাহিদুজ্জামান খোকন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।