চুয়াডাঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় চারজন আহতের ঘটনায় মামলা

17

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গার জাফরপুরে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় শিশুসহ একই পরিবারের চারজন আহতের ঘটনায় প্রাইভেটকারের মালিক রওশন আলী রতনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন আহত জোছনা বেগমের বড় বোন মুসলিমা খাতুন। গত মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন তিনি। মামলার আসামি সদর উপজেলার শংকরচঁন্দ্র ইউনিয়নের কমিউনিটি ক্লিনিকের ডিএমএস ডা. জেড এম রওশন আমিন রতন চুয়াডাঙ্গা পৌর শহরের থানা কাউন্সিলপাড়ার রুহুল আমিনের ছেলে।
মামলার বিষয়ে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু জিহাদ খান বলেন, জাফরপুর এলাকায় একটি সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে থানা পুলিশের একটি টিম পাঠানো হয়েছিল। দুর্ঘটনায় একই পরিবারের চার সদস্য আহত হন। ওই ঘটনার পরদিন আহত জোছনা বেগমের বড় বোন বাদী হয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতেই চুয়াডাঙ্গা সদর থানার পুলিশ কাজ শুরু করেছে।
প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার শংকরচঁন্দ্র ইউনিয়নের কমিউনিটি ক্লিনিকের ডিএমএস ডা. জেড এম রওশন আমিন রতন তাঁর নিজস্ব প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্টো-খ-১২-৯৭৫৬) চালিয়ে চুয়াডাঙ্গার দিকে আসছিলেন। পথের মধ্যে জাফরপুর বনবিভাগের অদূরে পৌঁছালে মশিউর রহমানের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। প্রাইভেটকারটি দ্রুতগতিতে মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেওয়ায় মোটরসাইকেলের চালক মশিউর রহমান ও তাঁর স্ত্রী ও দুই সন্তান রাস্তার ওপর ছিটকে পড়ে গুরুতর জখম হন।