চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ২১ মে ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গায় সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মে ২১, ২০২২ ৮:৩০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকায় গলায় ফাঁস দিয়ে মিম খাতুন (২৭) নামের এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যার আগে পৌর শহরের পলাশপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার বিষয়ে জানতে পেরে প্রতিবেশীরা তাঁকে দ্রুত উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত মিম খাতুন চুয়াডাঙ্গা পৌর শহরের পলাশপাড়ার সৌদি প্রবাসী লিটন হোসেনের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কুষ্টিয়া জেলার জগতি এলাকার মেয়ে মিম। ১৪ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে চুয়াডাঙ্গার পলাশপাড়ার লিটন হোসেনের সঙ্গে বিবাহ হয় তাঁর। সাংসারিক জীবনে মাহিন (১১) নামের একটি সন্তানও আছে তাঁদের। বেশিরভাগ সময় মিম মাথার অসুখে ভুগতেন। গতকাল বিকেলে মিমের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার বিষয়ে জানতে পেরে প্রতিবেশীরা তাঁকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাপসাতালে নেয়। পরে সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রতিবেশী রোমেছা বেগম বলেন, ‘সন্ধ্যার আগে দিকে মিমের শাশুড়ীর চিৎকারে আমিসহ পাড়ার আরও অনেকে তাদের বাড়িতে যেয়ে জানতে পারি মিম গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস দিয়েছে। এসময় আমরা তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসি। হাসপাতালে নিলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’ রোমেছা বেগম আরও বলেন, ‘শাশুড়ী ও ছেলের সঙ্গে ১০-১২ বছর ধরে পলাশপাড়ায় আমারে বাড়ির পাশের একটি টিন শেডের বাড়িতে ভাড়া থাকে ওরা। শাশুড়ীর সঙ্গে মিমের কোনো সময় ঝগড়া-বিবাদ হতে দেখিনি। তবে মিম বেশিরভাগ সময় অসুস্থ থাকতো। দুই দিন পূর্বেও সে হাপসাতালে ভর্তি ছিল। অসুস্থতার কারণে সে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে।’

চুয়াডাঙ্গা সদর হাপসাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. তাসনিম আফরীন জ্যোতি বলেন, ‘সন্ধ্যার দিকে প্রতিবেশীরা মিম নামের এক নারীকে জরুরি বিভাগে নেয়। এসময় জানতে পারি সে গলায় ফাঁস দিয়েছিল। তবে জরুরি বিভাগে আমরা তাকে মৃত অবস্থায় পেয়েছি। তার গলায় ফাঁস দেওয়ার চিহ্ন পাওয়া গেছে। হাসপাতালে নেওয়ার পূর্বেই তার মৃত্যু হয়।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আবু সাঈদ বলেন, চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার পলাশপাড়ায় এক গৃহবধূর আত্মহত্যার বিষয়ে জানতে পেরেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোনো অভিযোগ হয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।