চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ১৮ মার্চ ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গায় সেপটিক ট্যাংক পড়ে ২ নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
মার্চ ১৮, ২০২২ ২:৫১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা পৌর শহরের দাসপাড়ায় সেপটিক ট্যাংকে পড়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় আরও এক যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। শুক্রবার (১৮ মার্চ) সকাল ৭ টার দিকে আনন্দধাম দাস পাড়ার মন্দির প্রাঙ্গণের কাছে একটি সদ্য নির্মিত বাড়ির সেপটিক ট্যাংকে পড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যাক্তিরা হলো- কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালি এলাকার আনসার পরমানিকের ছেলে রাজমিস্ত্রি শরিফুল পরমানিক (৩৫) ও পাবনা চাটমোহর রেলবাজার এলাকার রাজু কুমার দাস এর ছেলে সাগর কুমার দাস। রাজু ওই নির্মিত ভবন মালিক নিপেন এর বাড়িতে বসবাস করে আসছিলো। তাদের উদ্ধার করে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে । স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার সকাল ৭ টার দিকে আনন্দধাম এলাকার দাসপাড়া সদ্য নির্মিত ভবনের নির্মানাধীন বাড়ির সেপ্টি ট্যাংকের ভেতরের সাটারিং খুলতে নেমে রাজমিস্ত্রি অজ্ঞান হয়ে যায় । পরে বাড়ির ওই যুবক চিৎকার দিয়ে সেও সেপটিক ট্যাংকিতে নামলে সেও অজ্ঞান হয়ে যায়। প্রতিবেশীরা ছুটে এসে ট্যাংকের ভিতরে তাদের উদ্ধারের চেষ্ঠা চালায়। আলমডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে ঘন্টা ব্যাপি শ্বাসরুদ্ধকর উদ্ধার অভিযান চালায়।অভিযানে দুজনকে উদ্ধার করে হারদি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষণা করে। এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, ফায়ার সার্ভিসের গাফিলতির কারণে উদ্ধার অভিযানের পূর্বে তারা মারা গেছে। সেপটিক ট্যাংকে অক্সিজেন না থাকার কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে। আলমডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের নিকট অক্সিজেনের ব্যবস্থা না থাকায় এ বিষয়ে তিব্র নিন্দা করেন এলাকাবাসী। আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন খবর পেয়ে সকালেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ফায়ার সার্ভিস তাদের দুজনকে উদ্ধার করে হারদি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষণা করে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।