চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ২ সেপ্টেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গায় সজিব হত্যার প্রতিবাদে ফাঁসির দাবীতে বিক্ষোভ আটক বাড়ীর মালিক তার স্ত্রী পুত্রকে আদালতে সোপর্দ ১০দিনের রিমাণ্ডের আবেদন

সমীকরণ প্রতিবেদন
সেপ্টেম্বর ২, ২০১৬ ৭:৩৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

03নিজস্ব প্রতিবেদক: বিশ লাখ টাকার চাঁদা না দেওয়ায় অপহরণকারীরা চুয়াডাঙ্গা ভিজে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র ও দামুড়হুদা ব্রিজ মোড়ের মৃত হাবিবুর হমানের ছেলে মাহফুজ আলম সজিবকে হত্যা করে লাশ গুম করে। এই হত্যায় অভিযুক্তদেরকে আদালতে  সোপর্দ  ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছে পুলিশ। এরা হলো অপহরণ ও হক্যা মামালার আসামী রাকিবুল ইসলাম রকিব মেম্বরের শ্বশুর ও বাড়ীর মালিক কোরবান আলী তার স্ত্রী জুলেখা এবং পুত্র মতিয়ারকে  অপরদিকে সজিব হত্যার প্রতিবাদের এবং অপরাধীদের ফাঁসীর দাবীতে ভিজে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ প্রদশ করেছে।
উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই উপজেলা দামুড়হুদা উপজেলা চত্বরে বৃক্ষ  মেলা দেখতে এসে অপহৃত হয় মাহফুজ আলম সজিব। এর পরের দিন  মুক্তিপণ বাবদ মোবাইল ফোনে ২০ লাখ টাকা চাদা দাবি করে অপহরণকারীরা। তারা হুমকি দেয় চাদা না দিলে সজিবকে  মেরে ফেলা হবে। বিষয়টি ঝিনাইদহ  র‌্যাব-৬ এর কাছে জানালে র‌্যাব একটি মোবাইল ফোনের সুত্র ধরে  চুয়াডাঙ্গার  সিএন্ডবি পাড়ার মৎস্য অফিসের পাশের বাড়ী খেকে সজিবের গলিত লাশ উদ্ধার করে র‌্যাব। এ ঘটনায় নিহতের মামা আব্দুল হালিম বাদী হয়ে  চুয়াডাঙ্গা আলোকদিয়া ইউপির ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার রকিব উদ্দিনসহ ৬ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেছেন এবং র‌্যাবের হাতে আটক বাড়ির মালিক  কোরবান আলীসহ ৩ জনকে থানায় সোপর্দ করা হয়। এ মামলার তদন্তকারী অফিসার এস আই আব্দুল খালেক বৃহস্পতিবার উল্লেখিত বাড়ীর মালিক কোরবান আলী ও তার পুত্র মতিয়ার এবং স্ত্রী জুলেখাকে আদালতে হাজির করলে আদালত তাদেরকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।
এ ব্যাপারে ১লা সেপ্টেম্বর দৈনিক সময়ের সমিকরনের প্রথম পাতায় প্রকাশিত লিড নিউজে সজিবের পরিবারের একটি পারিবারিক ঘটনার কারণে সজিবের বাবা মারা গেছে বা কিছু অপ্রাসঙ্গীক তথ্য প্রকাশ হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং মনগড়া বলে দাবী করেছে উল্লেখিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।