চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ১৯ আগস্ট ২০১৬

চুয়াডাঙ্গায় মিলন হত্যা মামলায় শিবলুর যাবজ্জীবন

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ১৯, ২০১৬ ৮:৫০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গায় মিলন হত্যার দায়ে শিবলু নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। গতকাল দুপুরে চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ শিরিন কবিতা আখতার এ রায় দেন। শিবলু (২২) চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার বড় মসজিদ পাড়ার কুদ্দুস আলির ছেলে। বিকেলে তাকে পুলিশ প্রহরায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের ৭ সেপ্টেম্বর রাতে  চুয়াডাঙ্গার পৌর কলেজ পাড়ার শরিফ উদ্দিনের ছেলে মিলনকে গাঁজা সেবনের জন্য শহরের আরামপাড়ার তুলি বেগমের আম বাগানে নিয়ে যান শিবলু। সেখানে দু’জনই গাঁজা সেবন করেন। পরে গাঁজার টাকা পরিশোধ করাকে কেন্দ্র করে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে মিলনের কাছে থাকা গাঁজা কাটার ছুরি কেড়ে নিয়ে মিলনকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেন শিবলু। পরের দিন সকালে স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে পুলিশ তার মৃতদেহ উদ্ধার করে। ওই দিন নিহত যুবকের বাবা বাদী হয়ে সদর থানায় হত্যা মামলা করেন। এ হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে একই বছরের ৯ সেপ্টেম্বর শিবলুকে আটক করে পুলিশ। শিবলু আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়ে হত্যার কথা স্বীকার করেন। চুয়াডাঙ্গা সদর থানার সেই সময়ের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল কাইয়ুম ২০১৪ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি শিবলুকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালত ১৩ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আসামির উপস্থিতিতে বৃহস্পাতিবার দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।