চুয়াডাঙ্গায় বিভিন্ন অপরাধ প্রতিরোধে সাহসিকতা ও পুলিশের কাজের মান বিবেচনা ৫জন সাধারণ নাগরিক ১০ পুলিশ কর্মকর্তাকে পুরষ্কার প্রদান

254

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গায় বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকা- সাহসিকতার সাথে প্রতিরোধ করায় ৫ জন সাধারণ নাগরিক ও ১০ পুলিশ কর্মকর্তাকে পুরষ্কৃত করেছে জেলা পুলিশ। গতকাল সোমবার বেলা ১২টার দিকে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সভায় তাদেরকে পুরষ্কৃত করা হয়। জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গায় সম্প্রতি ঘটে যাওয়া বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকা- সাহসিকতার প্রতিরোধ করেছে স্থানীয় সাধারণ নাগরিক। সাহসিকতার জন্য তাদেরকে বিশেষ সম্মাননা স্বরুপ পুরষ্কৃত করা হয়। এছাড়া চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে পুলিশ সদস্যদের পেশাদারিত্ব, কাজের মান, কাজের মান ও পরিমান বিবেচনা করে ১০ পুলিশ কর্মকর্তাকেও পুরষ্কৃত করা হয়েছে। সাহসিকতার জন্য পুরষ্কৃত হয়েছেন, চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার মুক্তিপাড়ার মাজেদুর রহমান টুটুল, সদর উপজেলার কালুপোল গ্রামের বরকতউল্লাহ, পৌর এলাকার নীলার মোড়ের মাহমুদুন্নবী, রাইসা ইটভাটার আব্দুল মালেক ও বর্ষা ইটভাটার শহিদুল ইসলাম পিন্টু। পুরষ্কৃত ১০ পুলিশ কর্মকর্তার মধ্যে রয়েছেন, আলমডাঙ্গা থানার এসআই সাজ্জাদুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা সদর ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই ওহিদুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা সদর থানার এসআই মাসুদ পারভেজ, দামুড়হুদা মডেল থানার এসআই মেজবাউর রহমান, এসআই সুব্রত বিশ্বাস, সদর ট্রাফিকের টিএসআই আবুল আজাদ ইব্রাহিম, আলমডাঙ্গা থানার এএসআই হুমায়ন কবির, ঘোলদাড়ী পুলিশ ক্যাম্পের এএসআই রফিকুল ইসলাম, দর্শনা তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই সাইদুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা সদর থানার এএসআই জামসেদ আলী। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, চুয়াডাঙ্গার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন, সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তরিকুল ইসলাম, দামুড়হুদা সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মো. কলিমুল্লাহ, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোজাম্মেল হক, দামুড়হুদা থানার আবু জিহাদ, জীবননগর থানার এনামুল হক ও আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ আকরাম হোসেনসহ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের কর্মকর্তারা।