চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ১৭ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গায় নতুন তিনজন আক্রান্ত

২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১০০৭ জন
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুলাই ১৭, ২০২২ ৯:১৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদক: সারাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এনিয়ে দেশে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৯ হাজার ২৩০ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে ১ হাজার ৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৯৫ হাজার ৪৪০ জনে। গতকাল শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৮৫৪ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ২২ হাজার ৯৭৭ জন। এসময় ৭ হাজার ২৪৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৭ হাজার ৩৫১টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭০ শতাংশ। করোনা মহামারির শুরুর পর  থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় চারজন ঢাকায় ও চট্টগ্রামে একজন মারা গেছেন। মারা যাওয়া পাঁচ জনের মধ্যে চারজন পুরুষ ও একজন নারী।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। ২০২১ সালের ৫ ও ১০ আগস্ট দুদিন সর্বাধিক ২৬৪ জন করে মারা যান।

চুয়াডাঙ্গা:

চুয়াডাঙ্গায় নতুন করে আরো তিনজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ৯০৮ জনে। গতকাল শনিবার জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।  গতকাল জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা পরীক্ষার ৩৭টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করে। এরমধ্যে তিনজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাকী ৩৪টি নমুনার ফলাফল নেগিটিভ আসে। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ৮ দশমিক ১০ শতাংশ।

চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিসের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী জেলায় এ পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৯০৮ জন। জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ২১০ জনের। এরমধ্যে জেলায় আক্রান্ত হয়ে জেলার হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে মৃত্যু হয়েছে ১৯০ জনের। এছাড়া চুয়াডাঙ্গায় আক্রান্ত অন্য ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে জেলার বাইরে।

করোনা মোকাবেলায় সরকারিভাবে জেলায় মোট ২৫০টি শয্যা প্রস্তুত রয়েছে। করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবার লক্ষে ৩০ জন সরকারি ও ১০ জন বেসরকারি চিকিৎসকসহ মোট ৪০ জন চিকিৎসক রয়েছেন, নার্স রয়েছেন ২৭ জন। জেলায় অক্সিজেন সিলিন্ডার ভর্তি (মজুদ) ১৩০টিসহ লিকুইড ট্যাঙ্ক লোড আছে। হাই ফ্লো নেজাল ক্যানোলা রয়েছে সাতটি ও অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর রয়েছে দশটি।

গতকাল পর্যন্ত চুয়াডাঙ্গায় করোনা প্রতিষেধক টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছে দশলাখ ৭৯ হাজার ৭৬৯ জন, দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছে দশলাখ ৩৩ হাজার ৬৪২ জন ও তৃতীয় ডোজ গ্রহণ করেছে দুই লাখ ৫১ হাজার ৯৬৭ জন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।