চুয়াডাঙ্গায় দুর্বৃত্তদের এলোপাতাড়ি কোপে যুবক জখম!

112
Exif_JPEG_420

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গায় পূর্বশত্রুতার জেরে প্রকাশ্যে আমিরুল ইসলাম রামিম (২২) নামের এক যুবককে মারপিট ও এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখমের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার সাড়ে ৫টার দিকে সদর হাসপাতাল সড়কের বাদলের মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় ব্যক্তিরা আহত রামিমকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়। আমিরুল ইসলাম রামিম চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার শান্তিপাড়ার সানোয়ার হোসেনের ছেলে। গত শুক্রবার সাগর নামের এক যুবককে কুপিয়ে জখম করার ঘটনার জের ধরে এই পাল্টা হামলা হয়েছে বলে দাবি করে পুলিশ। জানা যায়, গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সদর হাসপাতাল এলাকায় একটি শোরুম থেকে মোটরসাইকেল মেরামত করে বের হয় আমিরুল ইসলাম রামিম ও আকাশ নামের দুই যুবক। এসময় ৮-১০ জন যুবক মোটরসাইকেলযোগে ধারালো অস্ত্র নিয়ে রামিম ও আকাশের ওপর হামলা করলে আকাশ পালিয়ে যায়। কিন্তু ওই যুবকদলের হামলায় রামিম গুরুতর আহত হয়। শহরের বাদল মোড় নামকস্থানে ওই যুবকদল জিআই পাইপ দিয়ে রামিম পেটাতে থাকে। একপর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয় জখম করে। এসময় জীবন বাঁচাতে রামিম পাশের ড্রেনে ঝাঁপ দিলে হামলাকারীরা রামিমের সঙ্গে থাকা মোটরসাইকেলটি ভাঙচুর করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এ ঘটনায় শহরজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে থানায় নেয়।
চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিতসক ডা. জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, রামিমের বাম হাতে ধারালো অস্ত্রের কোপে জখম হয়েছে। জখম স্থানে ৫টা সেলাই প্রদান করা হয়েছে। এছাড়াও শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।