চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ১৮ নভেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গার যদুপুরে ২০টি পরিবারের রাস্তা বেড়া দিয়ে বন্ধ করার সংবাদ প্রকাশ

ইউএনও’র পরিদর্শন, দ্রুত সমাধানের আশ্বাস
প্রতিবেদক, হিজলগাড়ী:
নভেম্বর ১৮, ২০২১ ৮:৩৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

গত ১০ নভেম্বর দৈনিক সময়ের সমীকরণ-এ ‘বেগমপুরে যদুপুরে ২০টি পরিবারের রাস্তা তারকাঁটা দিয়ে বন্ধ করার অভিযোগ, মানুষ মারা গেলেও নেওয়া যাচ্ছে না কবরস্থানে’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হলে তা চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শামীম ভুইয়ার দৃষ্টিগোচর হয়। গতকাল বুধবার বেলা একটার দিকে তিনি সরেজমিনে যদুপুর পারঘাটা পাড়ায় এসে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় দ্রুত রাস্তাজনিত সমস্যা সমাধানের আশ্বাস প্রদান করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাজহারুল ইসলাম, প্রশাসনিক কর্মকর্তা আইনাল হক ও বেগমপুর ইউনিয়নের সমাজসেবক শামীম হোসেন মিজি।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বেগমপুর ইউনিয়নের যদুপুর পারঘাটাপাড়ার মেইন রাস্তার ধারে একই গ্রামের রাজ্জাক হোসেনের ছেলে কামালের কাছ থেকে এক বছর আগে ৫ কাটা জমি ক্রয় একই গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে মিলন। এই জমির একপাশ দিয়ে তৈরি রাস্তা দিয়ে প্রায় শত বছর যাবত গ্রামের মানুষজন কবরস্থান ও ঈদগাহ ময়দান এবং মাঠে আসা যাওয়া করতো। রাস্তা থাকায় কবরস্থানের আশেপাশে প্রায় ২০টি পরিবার বসতঘর নির্মাণ করে ৩০-৪০ বছর যাবত বসবাস করছে। হঠাৎ করেই গত ৩ মাস পূর্বে গাছ লাগানোর অজুহাতে কাটাতারের বেড়া দিয়ে জমি ঘিরে দিয়ে রাস্তা বন্ধ করে দেয় মিলনের পরিবারের লোকজন। যাতে চরম ভোগান্তিতে পড়ে এই রাস্তা ব্যবহারকারী ২০টি পরিবারের মানুষজন। এছাড়া এই রাস্তা দিয়ে মহল্লার মানুষ করবস্থান ও ঈদগাহ ময়দানে আসা যাওয়া করলেও রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ায় পুরো মহল্লার মানুষ ভোগান্তিতে পড়ে।

এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, ‘যদিও এই সমস্যার জন্য স্থানীয়রা আমার কাছে যায়নি বা অভিযোগ দেয়নি। দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকায় সংবাদটি দেখে আমি বিষয়টি সরেজমিনে দেখতে এসেছি। কোনো একটি ব্যক্তি বিশেষ এতগুলো মানুষের দুর্ভোগের কারণ হবে এটা হতে পারে না। আমি দুই পক্ষকে নিয়ে বসে বিষয়টির দ্রুত সমাধান করব।’

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।