চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গার বাড়াদী সীমান্তে বাংলাদেশী নাগরিকের উপর গ্রেনেড ছুঁড়েছে বিএসএফ নিখোঁজ মনিরুলের হদিস মিলছে না! উৎকণ্ঠায় স্বজনেরা

সমীকরণ প্রতিবেদন
সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৬ ১:৫৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

701436193_cda5b1524c

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গার-৬ বিজিবির বাড়াদী সীমান্তে মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর এক বাংলাদেশী নাগরিকের উপর সাউন্ড গ্রেনেড ছুঁড়েছে বিএসএফ’র বিজয়পুর ক্যাম্পের সদস্যরা। এরপর মনিরুল ইসলাম (৪০) কে আহত অবস্থায় আটক করেছে বিএসএফ। তবে তার হদিস মিলছেনা। এদিকে বিজিবির পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলেও আনুষ্ঠানিকভাবে বিএসফের পক্ষ থেকে মনিরুল ইসলামকে আটক করার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়নি বলে বিজিবি সুত্র জানিয়েছে। মনিরুল বেঁচে আছে কিনা মরে গেছে তা নিশ্চিত করে বলতে পারছেনা কেউ-ই। এ ঘটনার পর থেকে উদ্বেগ উৎকন্ঠায় রযেছে মনিরুলের স্বজনরা। বিজিবির চুয়াডাঙ্গা-৬ ব্যাটালিয়নের পরিচালক মোহাম্মদ আমির মজিদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার সীমান্তবর্তী কামারপাড়া গ্রামের মৃত ইমরান আলীর ছেলে মনিরুল ইসলাম (৪০) মঙ্গলবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৮ টার দিকে ৮১ নম্বর মেইন পিলারের কাছ থেকে অবৈধভাবে ভারতের ৫০ গজ অভ্যন্তরে ঢুকে পড়লে ১১৩-বিএসএফ ব্যাটালিয়নের বিজয়রপুর ক্যাম্পের সদস্যরা তার ওপরে বোমা (সাউন্ড গ্রেনেড) নিক্ষেপ করে। এতে সে আহত হলে বিএসএফ সদস্যরা তাকে আটক করে নিয়ে যায়। বিষয়টি জানার জন্য বিজিবির পক্ষ থেকে বিএসফের কাছে পত্র পাঠানো হয়েছে। এদিকে কামারপাড়া এলাকার বাড়াদী বিওপি কমান্ডার নায়েব সুবেদার খলিল জানান, বিএসফের হাতে মনিরুল ইসলামের আটকে খবরটি সমর্থিত সূত্র থেকে জানার পর তার কামারপাড়া বাড়িতে গিয়ে তালা বন্ধ পাওয়া যায়। বিএসএফ’র বিজয়পুর ক্যাম্পে কাছে পত্র পাঠানো হয়েছে। এখনও জবাব পাওয়া যায়নি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।